১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আবারও দুদকের মুখোমুখি পিরোজপুরের পৌর মেয়র

অনলাইন ডেস্ক ::: জাল-জালিয়াতির মাধ্যমে নিয়োগ প্রদান ও জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে পিরোজপুর পৌরসভার টানা চার বারের নির্বাচিত মেয়র হাবিবুর রহমান মালেককে আবারও জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীনি দমন কমিশন-দুদক।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুদকের প্রধান কার্যালয়ে এসে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ ও অবৈধ নিয়োগের বিষয়ে বক্তব্য দেন তিনি। এদিন দুদকের উপ পরিচালক আলী আকবর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

দুদক তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ৩৬ কোটি ৩৪ লাখ ৭ হাজার টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জন ও পৌরসভায় ঘুষ গ্রহণের মাধ্যমে ২২ কর্মচারী নিয়োগে দুদকের করা দুই মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

এর আগে চলতি বছরে ১৮ মার্চ দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালায় বরিশালে পিরোজপুরের পৌর মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক ও তার স্ত্রী নিলার বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের একটি মামলা হয়। একই দিনে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে নিয়োগের অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় পৌরসভার মেয়র হাবিবুর রহমান মালেক, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব তরফদার সোহেল রহমান, পৌরসভার কাউন্সিলর আবদুস সালাম বাতেন, নির্বাহী প্রকৌশলী আবু হানিফ, পৌরসভার সচিব মাসুদ আলমসহ নিয়োগ পাওয়া ২২ জনকে আসামি করা হয় করে অপর মামলাটি দায়ের করা হয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে সরকারি বিধি ভঙ্গ করে ভুয়া কাগজপত্র তৈরি করে নিয়োগ দিয়ে অপরাধ করেছেন। একইসঙ্গে নিয়োগের মাধ্যমে জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেন।

জানা যায়, ২০০৬ সালে পিরোজপুর পৌরসভার নৈশপ্রহরী, পরিচ্ছন্নতাকর্মী, টিকাদানকারী, ডাটা এন্ট্রি অপারেটরসহ বেশ কয়েকটি পদের বিপরীতে পঁচিশ জনকে নিয়োগ দেন পৌরমেয়র আলহাজ মো. হাবিবুর রহমান মালেকসহ পাঁচজন মিলে।

অভিযোগের বিষয়ে মেয়র হাবিবুর রহমান মালেকের সঙ্গে যোগযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। তবে এর আগে একটি স্বাক্ষাৎকারে তিনি ঢাকাটাইমসবে বলেছিলেন, ‘নিয়োগ প্রক্রিয়াটি অনেক আগের বিষয়। পত্রিকায় যথাযথ প্রক্রিয়ায় বিজ্ঞপ্তি দিয়েই নিয়োগ দেয়া হয়েছে।’

পৌরসভার একটি সূত্র জানায়, ২০০৬ সালের ৫ জুন পত্রিকায় ২৫টি খালি পদের বিপরীতে এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। ওই ২৫ জনের মধ্যে ২২ জন নিয়োগ পান। বাকি তিনজন নিয়োগ গ্রহণ করেননি। তবে এই নিয়োগের বিষয়ে পৌরসভা থেকে ‘দৈনিক সংবাদ’ পত্রিকায় যে তারিখে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ছাপার কথা বলা হয়েছে, বাস্তবে ওই তারিখের দৈনিক সংবাদে কোনো নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি।

গত বছরের ডিসেম্বরে নৌকা প্রতীক নিয়ে আওয়ামী লীগের মনোনীত র্প্রাথী হাবিবুর রহমান মালেক ওই নির্বাচনে বিনাপ্রতিদ্ধন্ধীতায় পিরোজপুর পৌরসভায় মেয়র পদে নির্বাচিত হয়েছেন। এ নিয়ে তিনি টানা চতুর্থবারের মতো পিরোজপুর পৌরসভার মেয়র পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ