২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

আমতলীতে মাছের ঘের থেকে লক্ষাধীক টাকার মালামাল লুট

হারুন অর রশিদ,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।
বরগুনার আমতলী উপজেলার ঘটখালীতে মাছের ঘেরের ঘর থেকে লক্ষাধীক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
স্থানীয় সত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার উপজেলার ঘটখালীর একটি মাছের ঘেরের ঘরে রাত অনুমান ৪টার সময় স্থানীয় আলী আহম্মদ ও ছেলে মাসুদের নেতৃত্বে ৬/৭জন ঘেরের মালিক মোঃ জসিম হাওলাদারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ঘরে থাকা মাছের খাবার, বের জাল ও নেট জাল নিয়ে যায়। যার মূল্য আনুমানিক ১ লাখ ২০ হাজার টাকা। ঘেরের মালামাল রাখার ঘরটি টেনে হেচরে ৫০ ফুট দুরে উপড়ে ফেলে রাখে।
উপজেলা শহর থেকে ৩ কিলোমিটার দুরে দীর্ঘ ৩০ বছর যাবত মাছের ঘেরের ব্যবসা করে আসছেন জসিম হাওলাদার। ঘেরে চিংড়ি, রুই, কাতলা, মিনার কার্পসহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছের চাষ করে আসছেন। প্রতিবেশী আলী আহম্মদ ও তার ছেলে মাসুদের সাথে ৩/৪ মাস পুর্বে জমিজমা নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। আলী আহম্মদ ও ছেলে মাসুদ প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার উদ্দেশ্যে রাতে এ ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগ করেন ঘের মালিক জসিম হাওলাদার।
জসিম হাওলাদার বলেন, আমি রাতে ঘেরে থাকি। গভীর রাতে আমাকে আলী আহম্মদ ও ছেলে মাসুদের নেতৃত্বে ৬/৭জ লোক ঘিরে ফেলে। আমার ঘরে থাকা মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। আমার জীবন নাশের হুমকি দিয়ে বলে আমি যেন মামলা মোকাদ্দমা না করি। আমি নিরুপয় হয়ে আপনাদের মাধ্যমে এর সুষ্ঠু বিচার চাই।
আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শাহ আলম বলেন, আমার কাছে কোন মামলা নিয়ে আসেনি। মামলা করা হলে এর তদন্তমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ