২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

আমতলীতে স্ত্রীর সাথে অভিমান করে বিষপান করলেন স্বামী!

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি :: বরগুনার আমতলীতে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী তানজিলা আক্তারের সাথে অভিমান করে স্বামী রাসেল প্যাদা (২০) বিষপান এবং ব্লেড দিয়ে হাত কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাসেলকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে পৌর শহরের ফায়ার সার্ভিস এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০২০ সালের ১০ অক্টোবর আমতলী উপজেলার খেকুয়ানী গ্রামের শানু মিয়ার মেয়ে তানজিলার সাথে দক্ষিণ টেপুড়া গ্রামের কাতার প্রবাসী হারুন প্যাদার ছেলে রাসেল প্যাদার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে ভালোই কাটছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। তানজিলা পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।

তানজিলা অভিযোগ করেন, স্বামী রাসেল প্যাদা বিদেশ যাওয়ার কথা বলে তার বাবা শানু মিয়ার কাছে এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। তার দাবিকৃত টাকা দিতে অস্বীকার করেন বাবা। এ নিয়ে বেশ কয়েকবার তানজিলাকে মারধর করেছে রাসেল। গত মঙ্গলবার তানজিলাকে স্বামী রাসেল মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। শুক্রবার স্ত্রী তানজিলাকে টাকা নিয়ে বাড়িতে আসতে বলেন রাসেল। কিন্তু তিনি বাড়ি যেতে অস্বীকার করেন। এ নিয়ে মোবাইল ফোনে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায় স্বামী রাসেল আমতলী পৌর শহরের ফায়ার সার্ভিসের সামনে এসে স্ত্রীকে মোবাইল ফোনে বিষপানে আত্মহত্যার কথা জানিয়ে কীটনাশক পান করেন এবং ব্লেড দিয়ে ডান হাতের বিভিন্ন স্থান কেটে ফেলেন। রক্তাক্ত ও অজ্ঞান অবস্থায় সড়কে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডা: সুমন বিশ্বাস তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রাসেলের ছোট ভাই হেলাল প্যাদা যৌতুক দাবির কথা অস্বীকার করে বলেন, আমার ভাইয়ের সাথে তার শ্বশুর-শাশুড়ি ও ভাবি খাবার আচরণ করেছে। তাই তিনি বিষপান ও ব্লেড দিয়ে হাত কেটে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। তিনি আরো বলেন, আমার ভাইয়ের অবস্থা খুবই খারাপ।

অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী তানজিলা খারাপ আচরণের কথা অস্বীকার করে বলেন, বিদেশ যাওয়ার কথা বলে আমার স্বামী বাবার কাছে এক রাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। ওই টাকা দিকে বাবা অস্বীকার করেন। এতে আমাকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। শুক্রবার এ নিয়ে মোবাইল ফোনে আমার সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে। এখন শুনতে পাচ্ছি সে বিষপান করেছে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা: সুমন বিশ্বাস বলেন, রাসেল কীটনাশক জাতীয় দ্রব্য পান করেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, তার ডান হাতে ব্লেডে কাটার চিহ্ন রয়েছে।

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: শাহ আলম হাওলাদার বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ