১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঝালকাঠিতে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা শ্রীঘরে ববিতে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে বৃদ্ধি পেয়েছে ৫০টি আসন গলাচিপায় স্কুলের কমিটি নিয়ে তর্ক, সহকর্মীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ শিক্ষকের টানা দুই মাস মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীর অভয়াশ্রমে মাছ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা গলাচিপায় শিক্ষকের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত, তদন্তে কমিটি আমতলী পৌরসভার বাসস্ট্যান্ডে বাঁশের বেড়া, যাত্রীসেবা সড়কে বাউফলে প্রেমিক যুগলকে না পেয়ে প্রেমিকার বাবাকে মারধর দেশ ও ইসলাম রক্ষায় বৃহত্তর ঐক্যের বিকল্প নেই : চরমোনাই পীর নলছিটিতে ৫ কেজি গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা আটক বরিশালে বড়ই বিক্রেতাকে পেটালেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও তার সহযোগী

আমতলীতে সড়ক মেরামত কাজে অনিয়মের অভিযোগ

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

হারুন অর রশিদ, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি।
বরগুনার আমতলীতে প্রায় ১ কোটি ৪৯ লক্ষ ৬৪ হাজার টাকা ব্যয়ে একটি সড়ক মেরামত করার কাজে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের আড়পাঙ্গাশিয়া বাজার থেকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় পর্যন্ত ৪.৩ কিলোমিটার সড়ক মেরামত করন কাজে এলাকাবাসী এই অনিয়মের অভিযোগ তুলেছে। নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে সড়ক মেরামত করছেন বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সূত্রে জানাগেছে, ২০২০-২১ অর্থবছরে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের জিওবি প্রযেক্টের অধীনে উপজেলার আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের আড়পাঙ্গাশিয়া বাজার থেকে ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় পর্যন্ত ৪.৩ কিলোমিটার সড়ক মেরামত কাজের দরপত্র আহবান করা হয়। পিরোজপুরের মেসার্স ফয়সাল শিল্পী এন্টার প্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি ওই কাজের কার্যাদেশ পায়।

ওই সড়কে পুরাতন খোয়া চাষদিয়ে রুলিং করে তার উপড়ে হালকা বালু ছিটিয়ে ৩ ইঞ্চি উচ্চতায় এক নাম্বার ইটের খোয়া (মেকাডাম) ফেলে রোলিং করার কথা। অথচ ঠিকাদার পরিমাণের চেয়ে কম ও নিম্নমানের ইটের খোয়া ফেলে রোলার দিয়ে রোলিং করে সড়কটি মেরামত করছেন। উপজেলা প্রকৌশল অফিস সঠিকভাবে কাজটি তদারকি করছেন না বলেও স্থানীয়রা অভিযোগ করেছেন।

এদিকে সড়কটিতে নিম্নমানের কাজ হওয়ায় স্থানীয় ও ভূক্তভোগী ওই এলাকার সচেতন মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে শেয়ার করেন। এরপরও ঠিকাদার ও তার লোকজন নি¤œমানের খোয়া ফেলে কাজটি চলমান রাখে। এ নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। আজ সোমবার সকালে সরেজমিন গিয়ে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে এর সত্যতা পাওয়া গেছে।

ঘোপখালী ও আড়পাঙ্গাশিয়া বাজারের বেশ কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানাগেছে, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি স্থানীয় এলজিইডি অফিসের সহযোগিতায় সড়কটি মেরামত কাজে সিডিউলের নিয়মনীতি তোয়াক্কা করে নিম্নমানের ৩নং ইটের (চুলার মাটির রংয়ের) খোয়া দিয়ে কাজ করছেন। স্থানীয়রা এতে বাঁধা দিলেও ঠিকাদার ও তার লোকজন কাজ চলমান রেখেছেন।

ঠিকাদারের পক্ষে ওই কাজ তদারকি করার দায়িত্বে থাকা মোঃ সোহেল মিয়া জানায়, ঠিকাদার আমাকে যেভাবে কাজ করতে বলেছেন আমি সেই ভাবেই সড়কটির মেরামত কাজ করছি।

কাজ তদারকির দায়িত্বে থাকা উপজেলা প্রকৌশল অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মোঃ নিজাম উদ্দিন বলেন, সড়কটিতে বেশ কয়েকটি জায়গায় ঠিকাদার নিম্নমানের খোয়া ব্যবহারে করেছেন। আজকের মধ্যে তাদের সেই খোয়া সড়ক তুলে নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স ফয়সাল শিল্পী (এফসি) এন্টারপ্রাইজের মালিক মোঃ সাকিল মুঠোফোনে জানান, সিডিউল অনুযায়ী সড়কটির মেরামত কাজ চলছে। দু’একটি জায়গায় নি¤œমানের খোয়া ফেলা হয়েছে। সে খোয়া সড়ক থেকে অপসারণ করা হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী আবদুল্লাহ আল মামুন মুঠোফোনে বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর সরেজমিনে তদন্ত করে সড়কে ফেলা নিম্নমানের খোয়া অপসারণের জন্য ঠিকাদারকে পত্রের মাধ্যমে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সর্বশেষ