১৫ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে বরিশাল নদী বন্দরে সরব কোস্টগার্ড ভোলায় মাদক প্রবেশ রোধ ও যাত্রীদের নিরাপত্তায় লঞ্চে তল্লাশি মঠবাড়িয়ায় ট্রাক-প্রাইভেটকার সং*ঘর্ষে যুবক নি*হত, আ*হত ১ ধ*র্ষ*ণ মামলার আসামি স্কুলশিক্ষক বরখাস্ত পর্যটক বরণ করতে প্রস্তুত সাগরকন্যা কুয়াকাটা, নেই কাঙ্ক্ষিত হোটেল বুকিং কলাপাড়ায উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃত্বে মুসা-অমি মঠবাড়িয়ায় সিগারেট বাকি না দেওয়ায় পি*টিয়ে হ*ত্যা, র‌্যাবের জালে ২ অভিযুক্ত বাবুগঞ্জে অটোরিকশা-ইজিবাইক মুখোমুখি সং*ঘর্ষে নারীর মৃ*ত্যু ঈদযাত্রায় নিরাপত্তা নিশ্চিতে বরিশালে মহাসড়কে অভিযান শেখ হাসিনা সেনানিবাসে সেনাপ্রধানকে বিদায়ী সংবর্ধনা

আমরা জনগণের ভোটে হারি নাই, হেরেছি ষড়যন্ত্রের কাছে : নাছিম

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

শামীম আহমেদ ::: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেছেন, গাজীপুর সিটি নির্বাচন থেকে আমরা শিক্ষা নিয়েছি। আমাদের আরও কিছু জানার আছে, অনেক কিছু বুঝতেও বাকি আছি। আমরা তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছি। আমরা জানি, এই নির্বাচনে জনগণ আমাদের ভোট দিয়েছে। আমরা জনগণের ভোটে হারি নাই, আমরা হেরেছি ষড়যন্ত্রের কাছে। আমরা হেরেছি বিশ্বাসঘাতকদের কারণে।

আজ মঙ্গলবার (৩০ মে) বিকেলে বরিশাল জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বরিশাল জেলা ও মহানগর, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, বরগুনা ও ভোলা জেলা যুবলীগের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল খায়ের আব্দুল্লাহ খোকন সেরনিয়াবাতকে বিজয়ী করার লক্ষ্যে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাহাউদ্দিন নাছিম আরও বলেন, আমরা গাজীপুর থেকে সতর্ক হয়ে বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নতুন করে, নতুন উদ্যমে নির্বাচনী কৌশল পাল্টে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুযায়ী মানুষের কাছে যাবে। মানুষের কাছে গিয়ে আমরা ভোট ভিক্ষা করব। যতবার যাওয়ার প্রয়োজন আমরা যাব, যেন ভোটাররা বিরক্ত হয়ে বলে, তোমরা আর এসো না। আমরা তোমাদের নৌকা মার্কায় খোকন সেরনিয়াবাতকে ভোট দেবো। আর তখনই আমাদের যাওয়া বন্ধ হবে।

গাজীপুর সিটি নির্বাচনে পরাজয় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গাজীপুরের নির্বাচনের পরাজয়ের মধ্য দিয়ে আমাদের কোনো ক্ষতি হয়নি, আমাদের ক্ষতি হয়েছে- একজন মেয়রকে আমরা হারিয়েছি। কিন্তু আমরা অনেক বেইমান-বিশ্বাসঘাতকদের চিনতে পেরেছি। আগামী ১২ জুন বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে শেখ হাসিনার আওয়ামী লীগে বিশ্বাসঘাতকদের কোনো জায়গা হবে না। কারণ ঘরের শত্রু বিভীষণ। ঘরে শত্রু রেখে লড়াই করা যায় না। ঘরে শত্রু রেখে, বিশ্বাসঘাতক রেখে আমরা ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট আমাদের মহান নেতাকে হারিয়েছি। আমরা আর কাউকে হারাতে চাই না।

আওয়ামী লীগে কোনো বিভেদ নেই উল্লেখ করে দলটির এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা ঘরে-বাইরে এক ও অভিন্ন আছি, আমাদের মাঝে কোনো বিভেদ নেই। বরিশালের সকল পর্যায়ের আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা মানুষের দ্বারে দ্বারে ভোট চাইছেন। আমাদের শপথ নিতে হবে, আমাদের আল্লাহ ও নবিজির নামে এই বলে শপথ নিতে হবে যে, বিশ্বাসঘাতকদের বিপক্ষে আমরা সবসময় সোচ্চার থাকব, ঐক্যবদ্ধ থাকব। যে কোনো মূল্যে বিশ্বাসঘাতকদের দাঁতভাঙা জবাব আমরা বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিজয়ের মধ্য দিয়ে দিতে চাই।

এসময় তিনি, সেলফি তুলে আর ছবি তুলে, ভোটারদের কাছে ৫ জন গিয়ে শ্লোগান দিয়ে অথবা শ্লোগানের ভয়েস মেসেজ সংগ্রহ করে নেতাদের কাছে পাঠিয়ে কোনো লাভ নেই বলেও মন্তব্য করেন।

খোকন সেরনিয়াবাত বিজয়ী হলে অনুন্নত ওয়ার্ডগুলোসহ গোটা বরিশালের উন্নয়ন করা হবে জানিয়ে বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের গ্রামগুলো শহরে রূপান্তরিত হয়েছে। এবার আমরা বরিশাল শহরকে তিলোত্তমা নগরীতে পরিণত করবো।

যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বলেন, যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের আগমনের মধ্যে দিয়ে এই নগরে একটি পরিবর্তন লক্ষ্য করছি। নৌকার পালে হাওয়া লেগেছে, নতুন গতি সঞ্চার হয়েছে তিনি (পরশ)সহ যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা বরিশালে আসার মধ্য দিয়ে।

আওয়ামী লীগ ধর্মের কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করে না মন্তব্য করে আফজাল হোসেন বলেন, অতীতে অনেক সরকার ছিল, তাদের অনেকেই ধর্মের কথা বলে ভোট নিয়েছে। কিন্তু বিশ্বের ইতিহাসে ৫৬০টি মডেল মসজিদ কোনো সরকার করেনি। কওমি মাদরাসাসহ অন্যান্য মাদরাসার শিক্ষকরা মানবেতর জীবনযাপন করেছেন, তারা আজ বেতন পাচ্ছে নিয়মিতই। তারপরেও আমরা ধর্মের কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করি না।

দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আরও বলেন, নির্বাচনে প্রতীক দেওয়ার পর থেকে এ অঞ্চলে আছি। প্রার্থী খোকন সেরনিয়াবাত অত্যন্ত পরিশ্রম করে মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোট চাইছেন, তার কর্মীরাও কাজ করছেন। এরই মধ্যে তিনি নগরবাসীর আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করেছেন। তারা আগামী ১২ তারিখে নৌকা প্রতীকে ভোট দেবেন- এটা আমি বিশ্বাস করছি। তারপরও আমাদের আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ প্রতিটি অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের প্রার্থীর পক্ষে ঘরে ঘরে সালাম পৌঁছে দিতে হবে। বরিশালের উন্নয়নের ধারা অক্ষুন্ন রাখতে নৌকার পক্ষে বিনয়ের সঙ্গে ভোটারদের কাছে ভোট চাইতে হবে।

সর্বশেষ