৬ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ইন্দুরকানীতে স্কুল ছাত্রী মিম আত্মহত্যা প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবিতে শিক্ষক ও সহপাঠিদের মানববন্ধন

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের ইন্দুরকানীর স্কুল ছাত্রী মিমকে আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে শিক্ষক ও সহপাঠিরা মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছেন। বৃহস্পতিবার (২৩জুন) উপজেলার পত্তাশী জনকল্যাণ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দের আয়োজনে পত্তাশী বাজারের রোডে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন, পত্তাশী জনকল্যাণ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোঃ সুমন হাসান, অফিস সহকারি মোঃ হুমায়ূন কবির, নিহত কলেজ শিক্ষার্থী শর্মিলা আক্তার মিমের পিতা মোঃ শাহাদাত হোসেন রানা, স্কুল ছাত্রী সানজিদা আক্তার প্রমুখ। এসময় বক্তারা অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার বখাটের উৎপাতে শর্মিলা আকতার মীম (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। সে পত্তাশী গ্রামের শাহাদৎ হোসেন রানার মেয়ে কলেজ ছাত্রী শর্মিলা আকতার মীম পাশ্ববর্তী পত্তাশী জনকল্যান কলেজে একাদশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী ছিল। কলেজে আসা যাওয়ায় পথে ওই ছাত্রীকে পত্তাশী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামের ছেলে তানভির সহ কয়েকজন বখাটে নিয়মিত উত্যক্ত করত। বুধবার ওই বখাটে তানভীর সহ তার সহযোগীরা বাড়ী ফেরার পথে কলেজ ছাত্রীকে তুলে নেয়ার হুমকী দেয়। এবং রাতে বখাটে তানভির আবারও কলেজ ছাত্রীকে মোবাইলে প্রেম করার কথা বলে না করলে তুলে নেয়ার হুমকী দেয়। পরে বৃহস্পতিবার সকালে কলেজ ছাত্রী তার রুমের দরজা বন্ধ করে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে আত্মহত্যা করে। এসময় তার স্বজনেরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ