১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশাল সদর উপজেলা নির্বাচনে আমার কোন চেয়ারম্যান প্রার্থী নেই : পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী রাঙ্গাবালীতে মুগডাল তোলা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ, দুই নারীসহ আহত ৭ ববি শিক্ষিকার চুরি হওয়া ল্যাপটপ উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৩ দেশীয় তহবিলের অর্থে নির্মাণ হচ্ছে মীরগঞ্জ সেতু বরিশালে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি সাকিব গ্রেপ্তার ভোলা থিয়েটারের কমিটিতে সভাপতি লিটন, সম্পাদক বাঁধন ভোলায় ক্রিকেট ব্যাটের আঘাতে যুবকের মৃত্যু, থানায় মামলা পটুয়াখালীতে স্ত্রীর স্বীকৃতি পেতে প্রেমিকের বাড়িতে তরুণীর অনশন গলাচিপায় স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে স্বামী 'র বাড়িতে অনশন ডিবির অভিযানে সাড়ে ৪ লক্ষ টাকার ৬ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যাবসায়ী আটক!

ইমাম সাহেবের বেতন চাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩ ।।

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

নিজস্ব প্রতিবেদক ।। মসজিদের ইমাম সাহেবের ১০ মাসের বেতন বকেয়া। সেই টাকা-চাওয়া কে কেন্দ্র করে মসজিদ পরিচালনাকারী পরিবারের তিন সদস্যকে কুপিয়ে পিটিয়ে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পবিত্র রমজান মাসে এমন নৃশংস হামলার ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা বিরাজ করছে ওই এলাকায়।

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ কাজিরহাট থানাধীন ২নং ওয়ার্ড কাদিরাবাদ এলাকায় গত শুক্রবার জুম্মা নামাজের পর আনুমানিক ২ টায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হল মসজিদ পরিচালনাকারী মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়ার ছেলে মোদারেছ মিয়া(৩৫) ও বজলুর রহমান মিয়া(৩৩) এবং ভাই বাহাউদ্দিন মিয়া(৫৫)। 

বর্তমানে তারা মুমূর্ষ অবস্থায় বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

আহত সূত্রে জানা যায়, ওই এলাকার ঐতিহ্যবাহী আলীখার হাট জামে মসজিদ এর পরিচালনার দীর্ঘদিন যাবত দায়িত্ব পালন করে আসছে গিয়াস উদ্দিন মিয়া। একই এলাকার বাসিন্দা মৃত মন্নান বেপারির ছেলে সিরাজুল বেপারীর কাছে গত বছরের সাত মাসের মসজিদের ইমামের বেতন ও ২০২৪ সালের ৩ মাসের বেতন বাকি রয়েছে। ঘটনার দিন জুম্মার নামাজের সময় সেই টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে উভয়ের মাঝে বাক-বিতণ্ডের সৃষ্টি হয়।

পরে জুম্মার নামাজ শেষ হলে সিরাজুলের নেতৃত্বে ভাড়াটে সন্ত্রাসী মাইনুল ,নয়ন, মহসিন, মেহেদী, জয়নাল ,বিপ্লব সহ অজ্ঞাত ৫/৬ জন সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অতর্কিত ভাবে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা চালায়। ভাড়াটে সন্ত্রাসী মাইনুলের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। 

পরে স্থানীয় ও পুলিশের সহযোগিতায় আহতদের উদ্ধার করে তাৎক্ষণিকভাবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তাদের অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য শেবাচিমে প্রেরণ করে।

ওই সন্ত্রাসী পরিবারের হাতে জিম্মি সাধারণ জনগণ। সাধারণ মানুষকে মারধরও হয়রানি করাই তাদের অন্যতম কাজ। এমন নিশংস নেক্কার জনক ঘটনার সুষ্ঠু বিচার এর দাবি করছে ভুক্তভোগী পরিবার।

এ বিষয়ে মামলাদারের করা হয়েছে বলে জানান আহতের স্বজনরা ।

সর্বশেষ