১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
কানাইঘাট উপজেলার প্রায় ৯০ ভাগ এলাকা বন্যা প্লাবিত শিকারপুরে আ’লীগ ও স্বতন্ত্রসহ ৩ চেয়ারম্যান প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র দাখিল বানারীপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে আ’লীগের আলোচনা সভা এনায়েতপুর হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা  বাকেরগঞ্জে ওসি'র নির্দেশনায় অভিযানঃ ৮ টি গাঁজার গাছসহ আটক-১ ভোলা জেলা পুলিশের মাসিক অপরাধ ও আইন শৃংঙ্খলা পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত ভোলায় পাথরবোঝাই ট্রাক নিয়ে বেইলি ব্রিজ খালে পদ্মা সেতুতে যানবাহনের টোল নির্ধারণ করলো সরকার বরিশালে মানামী লঞ্চের কেবিন থেকে অলঙ্কারভর্তি ব্যাগ চুরি বরিশালে হঠাৎ করেই ৫ নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে

উজিরপুরে অসহায় পরিবারের জমি দখলের মিশনে প্রভাবশালীরা অতঃপর হামলা

উজিরপুর (বরিশাল) প্রতিনিধিঃ বরিশালের উজিরপুরে অসহায় পরিবারের ভোগদখলীয় জমি দখলের পায়তারা চালাচ্ছে প্রভাবশালী ভুমিদস্যুরা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় উজিরপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায়, উপজেলার বড়াকোঠা ইউনিয়নের গাজীরপাড় গ্রামের মূত- আবুল হাসেম বেপারীর মূত্যুর পরে তার ছেলে মোঃ রফিকুল ইসলাম (৩৬) ওই মৌজার এস.এ খতিয়ান নং-৪৪৭/৪৪৮ দাগ নং-৩৮৬ দাগের মধ্যে ৪১ শতাংশ জমি ওয়ারিশ মুলে পূর্ব পুরুষগনের মৃত্যুরপর ওয়ারিশ সুত্রে আমার তফসিল বর্নিত সম্ভোপতির মালিক গদখল কারি নিযুক্ত হই । উক্ত জমি দখলের মিশনে নেমেছে এই এলাকার মূত- হোসেন ফকিরের ছেলে সেন্ট ফকির (৩৫) গংরা। এমনকী ওই জমি থেকে অসহায় পরিবারেকে ভয়ভীতি ও হুমকী অব্যহত ছিল। এরই ধারাবাহিকতায় ৩ ডিসেম্বর শুক্রবার সকাল অনুমান ১০ টায় প্রভাবশালী সেন্ট ফকির,আক্তার হোসেন, হাসেন আলী বেপারী,সুলতান ফকির, কাইয়ুম হোসেন গংরা একদল ভারাটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে দেশীয় অস্ত্র সাজে সজ্জিত হয়ে জোরপূর্বক উক্ত জমিতে সীমানা পিলার স্থাপন পায়তারা চালায়। এর আমি বাধা দিলে দলবদ্ধ ভাবে আসিয়া আমার উপর চড়ায় হয় এবং সকলে এলোপাথারী ভাবে কিল,ঘুষী, চর থাপ্পর দেয়। আমাকে উদ্ধার করতে আসা ছবি বেগমকে কিল ,ঘুসি এবং তাহার পরনের কাপর চোপর টানা গেচরা করিয়া শ্লীলতা হানি ঘটায়। তার গলায় থাকা ৮ আনা ওজনের স্বর্নের চেইন ছিনিয়ে নিয়ে যায়। যাহার মুল্য, ৪০.০০০ হাজার টাকা। অসহায় পরিবারকে হত্যা,গুম, নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন মামলার জড়ানোর হুমকি দেয়। হুমকীর মুখে ভুক্তভোগী পরিবারের সকল সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে চলে যায়। স্থানীয় মোশারফ হোসেন হাওলাদার জানান দীর্ঘ ৬০ বছর ধরে রফিকুল ইসলাম গংরা ওই জমি ভোগদখল করে আসছে। অভিযুক্ত সেন্ট ফকিরে
মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন দিলে বন্ধ পাওয়া যায়। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ আলী আর্শাদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ