২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

উজিরপুরে গলায় ছুরি ঠেকিয়ে খুনের হুমকি দিয়ে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশালের উজিরপুরে মোবাইলে অশ্লীল ভিডিও দেখিয়ে গলায় ছুরি ঠেকিয়ে খুনের হুমকি দিয়ে চতুর্থ শ্রেণির এক শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বুধবার দিবাগত রাতে ওই শিশু শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে জালাল হাওলাদার (৩০) নামের এক জেলেকে অভিযুক্ত করে উজিরপুর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

এর আগে বুধবার (১৯ মে) দুপুরে শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত জালালের বিচারের দাবিতে পৌর সদরের ৭নং ওয়ার্ড হানুয়া বারপাইকা গ্রামে বিক্ষোভ মিছিল করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে বিকেলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার গুঠিয়া ইউপির দাসেরহাট খেয়াঘাট এলাকা থেকে অবিযুক্ত জালাল হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করে। তিনি পৌর সদরের ৭নং ওয়ার্ড হানুয়া বারপাইকা গ্রামের জয়নাল হাওলাদারের ছেলে ও চার সন্তানের জনক।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার (১৮ মে) বেলা ১১টার দিকে পানি খাওয়ার ছলে পৌর সদরের ৭নং ওয়ার্ড হানুয়া বারপাইকা গ্রামের ওই শিশু শিক্ষার্থীর বসতঘরে ঢোকে অভিযুক্ত জালাল। এ সময় ঘরে অভিভাবকরা না থাকার সুযোগে ওই কণ্যা শিশুকে জালাল তার মোবাইল ফোনের অশ্লীল ভিডিও দেখায়। এতে বিরক্ত হয়ে ওই শিশু শিক্ষার্থী চিৎকার দেয়ার চেষ্টা করলে অভিযুক্ত জালাল তার সাথে থাকা গলায় ছুরি ঠেকিয়ে খুনের ভয় দেখিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগী শিশুর মা জানিয়েছেন, তার স্বামী নির্মাণ শ্রমিকের এবং নিজে অন্যের বাড়ীতে গৃহপরিচারিকার কাজ করে সংসার চালিয়ে আসছেন। সন্তানদের নিয়ে সরকারের দেওয়া ভূমিহীনের প্রাপ্ত জমিতে তারা বসবাস করছেন। দীর্ঘদিন ধরেই অভিযুক্ত জালাল নানান অজুহাতে তাদের ঘরে আসা-যাওয়া করতেন। ঘটনার দিন সকালে তার স্বামী রান্নাঘরের টিন ক্রয় করতে বাজারে গিয়েছিলেন এবং তিনি গৃহপরিচারিকার কাজে অন্যের বাড়িতে ছিলেন।

মামলার বাদী ওই শিশু শিক্ষার্থীর বাবা জানান, বুধবার সকালে পৌনে ১১টার দিকে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে জালাল কল করে ঘরে কেউ না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়। এরপরই ঘরে ঢুকে তার শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত জালাল।

এ বিষয়ে উজিরপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ জিয়াউল আহসান জানিয়েছেন, শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। একই সাথে নির্যাতিতা শিশুকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ