২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

উজিরপুরে ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে লাপাত্তা ইউপি সদস্যের স্ত্রী

উজিরপুর প্রতিনিধি :: বরিশালের উজিরপুরে এক ইউপি সদস্য’র ২য় স্ত্রী নগদ অর্থ, স্বর্নালংকারসহ ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে লাপাত্তার ঘটনায় বরিশাল আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

মামলা ও ভূক্তভোগী সুত্রে জানা যায়- উপজেলার শোলক ইউনিয়নের দামোদারকাঠী ৮ং ওয়ার্ডের মৃত আঃ কাদের বেপারীর ছেলে ইউপি সদস্য মোঃ শাহজাহান বেপারী ২০২১ সালের ১ মার্চ আলৈঝাড়া উপজেলার বেলুহার গ্রামে হারুন ভুইয়ার মেয়ে লাকি বেগম(৪০) কে ইসলামী শরিয়া মোতাবেক নোটারী পাবলিকের এফিডেভিটের মাধ্যমে ও রেজিঃ কাবিনমূলে বিবাহ করেন। জানা যায়, লাকি আক্তার তার দ্বিতীয় স্ত্রী। স্বামী-স্ত্রী উভয়ে মিলে ধামুরা মজিবুর রহমানের বাসায় ভাড়ায় থেকে দাম্পত্য জীবন শুরু করে। এরপর শশুর বাড়ির লোকের কুপরামর্শে লাকি আক্তার ৪ আগষ্ট রাত ৮টার দিকে স্বামী ঘরে না থাকার সুযোগে জমি বিক্রির ৩ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা এবং ব্যবসার জন্য জমানো ২ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা, দেড় ভরি স্বর্ণালংকার, ২টি মোবাইল সেটসহ ৭ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায়। এ ঘটনায় ইউপি সদস্য শাহজাহান বেপারী ১৯ আগষ্ট বরিশাল বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে ভিকটিম লাকি বেগম ও তার নিকট আত্মীয় সবুর হাওলাদার(৩৫),আশিক হাওলাদার(২০),হায়দার ভূইয়া(৩০),বোন সোনিয়া বেগম(৩২)কে আসামী করে মামলা দায়ের করে। এছাড়াও উজিরপুর মডেল থানায় ও ইউনিয়ন পরিষদে ৫ আগষ্ট অভিযোগ দায়ের করে। আদালতে দুইটি মামলাসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দিয়েও কোন সুরাহা পায়নি। বারবার শালিসী বৈঠকের কথা থাকলেও উপস্থিত হয় না লাকি ও তার পরিবারের লোকজন।

এ ব্যাপারে ভূক্তভোগী শাহজাহান বেপারী জানান, লাকি বেগম আমাকে ফুসলিয়ে প্রেমের সম্পর্কে বাধ্য করে। অতঃপর আমাদের মধ্যে বিবাহ হয়। এমনকি তার গর্ভে আমার ৪মাসের সন্তান রয়েছে। সে যেন পরিমনিকেও হার মানিয়েছে। আমাকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে আমার সর্বস্ব কেড়ে নিয়েছে এবং তার বাবা মুক্তিযোদ্ধা হওয়ায় সেই দাপট দেখিয়ে আমাকে মামলা তুলে নেয়াসহ বিভিন্ন ভয়ভীতি ও ধরে নিয়ে খুন জখম করার হুমকি দিচ্ছে। বর্তমানে আমি হুমকির মুখে আতঙ্কে রয়েছি।

অভিযুক্ত লাকি আক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে বারবার ফোন করা হলেও ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

ওই প্রতারক নারীকে গ্রেফতার পূর্বক লুটকৃত অর্থ ও স্বর্ণালংকার ফিরিয়ে পাবার দাবী জানিয়ে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন ভ‚ক্তভোগী।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ