২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

একজন অভিনয়শিল্পীর দায়বদ্ধতা নিয়ে বিশেষ নাটক ‘অভিনেতা’

এ আল মামুন, বিনোদন প্রতিবেদকঃ ইউটিউবে ‘অভিনেতা’ নাটকটি প্রকাশ হওয়ার পর থেকে চলছে দর্শকদের আলোচনা। একজন অভিনয়শিল্পীর দায়বদ্ধতা অনেক। কোন গল্পে কাজ করা ঠিক, কোন ধরনের চরিত্র বেছে নেয়া উচিৎ কিংবা একটি চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে সেটার প্রভাব সমাজে কেমন পড়বে— এমন সেনসেটিভ নানান বিষয় নিয়ে ঈদে নির্মিত হয়েছে নাটক ‘অভিনেতা’। ‘রক্ত’ খ্যাত পরিচালক রাকেশ বসু গুণী অভিনেতা মোশাররফ করিমকে নিয়ে নির্মাণ করেছেন এই নাটকটি। এতে আরো অভিনয় করেছেন ইন্তেখাব দিনার, তানিয়া বৃষ্টি, সৈকত সিদ্দিকী প্রমূখ। ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট ও ভাইসব মিডিয়া প্রযোজিত নাটকটি ঈদ অনুষ্ঠানমালায় বাংলাভিশনে প্রচারিত হয়। আর ক্রাউন ক্রিয়েশনস এর মাকেংটিং ব্যবস্থাপনায় নাটকটি হিয়া এন্টারটেইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলে দেখা যাচ্ছে।

সোমবার (৩ আগষ্ট) বিকেল ৫ টায় হিয়া এন্টারটেইনমেন্ট ইউটিউব চ্যানেলটিতে প্রকাশ হওয়ার পর থেকে দর্শকদের মাঝে ব্যাপক সাড়া দেখা দিয়েছে। এটার মূল কারন— এবারের ঈদে প্রচারিত কয়েকটি নাটকের গল্প এবং সেই নাটকের ম্যাসেজ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনা হয়েছে। যেখানে ঘুরেফিরে অভিনয়শিল্পীদের দায়বদ্ধতার কথা বলা হয়েছে। একজন অভিনয়শিল্পীর গল্প বোঝা এবং তার অভিনীত সেই চরিত্রটি সমাজে কেমন প্রভাব পড়বে— এই বিষয়গুলো নিয়ে যখন সোশ্যাল মিডিয়া আলোচনা—সমালোচনার ঝড় বইছে ঠিক তখনি ‘অভিনেতা’ নাটকে সেই বিষয়টি আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিলেন নির্মাতা রাকেশ বসু।

অন্যদিকে মোশাররফ করিমের মতো শক্তিমান অভিনেতা এমন সেনসেটিভ একটি চরিত্রে অভিনয় করে একজন অভিনেতার দায়ের বিষয়টির কথা সবাই সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনা নিয়ে আসে। ফলে ঠিক সময় উপযোগী একটি নির্মাণ বলে অনেকেই ‘অভিনেতা’ নাটকটির প্রশংসা করছে। নাটকের লিংকের কমেন্টস বক্সই তার বড় প্রমাণ।

এ প্রসঙ্গে নির্মাতা রাকেশ বসু বলেন, ‘শিল্পের প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে আমি নাটকটি নির্মাণ করি। আমরা অনেক সময় অনেক সামান্য কিছু বিষয় এড়িয়ে যাই। হয়তো জনপ্রিয়তা, ভিউ কিংবা বাণিজ্যের জন্য অনেক কিছুই আমাদের করতে হয়। তারপরও আমি চেষ্টা করেছি নিজেদের দায়ের জায়গা থেকে কাজটি করতে। নাটকটি দেখে অনেকেই প্রশংসা করছেন এটাই আমার প্রাপ্তি।’

টিজি আনন্দ টিভি
অল্প কথায় গল্প বলে
https://youtube.com/channel/UCeBxiky-VuKnCIrJ-gvtKHw

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ