১৭ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

এবার ইন্দুরকানিতে দেড় শতাধিক পাখির ছানা হত্যা

পিরোজপুর প্রতিনিধি :: পিরোজপুরের ইন্দুরকানীতে ক্ষেতের বোরো ধান খাওয়ার অপরাধে প্রায় দেড় শতাধিক বাবুই পাখির ছানা হত্যা করলেন এক ক্ষেত মালিক। শনিবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যায় উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভবানীপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, জমিতে বোরো ধান চাষ করছেন স্থানীয় হেমায়েত হোসেন মোল্লাসহ গ্রামের কয়েকজন কৃষক। কিন্তু গত কয়েক দিন ধরে সেই জমির বোরো ধান খেয়ে নিচ্ছে বিভিন্ন পাখি। জমির পাশেই দুইটি তাল গাছে রয়েছে শতাধিক বাবুই পাখির বাসা। পাখিতে ধান খেয়ে নেয়ায় ক্ষিপ্ত হন ক্ষেত মালিক হেমায়েত হোসেন মোল্লা। তারই নির্দেশে গত ২-৩ দিন ধরে ওই গাছে থাকা বাবুই পাখির বাসাগুলো ভেঙে ও এর ভেতর থাকা ছানাগুলো হত্যা করেন তার ছোটভাই লুৎফর রহমান মোল্লা।

শনিবার সন্ধ্যার আগে লুৎফর রহমান মোল্লার নেতৃত্বে কয়েকজন মিলে বড় একটি বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে ওই তাল গাছে থাকা বাবুই পাখির বাসাগুলো ভেঙে মাটিতে ফেলে দেন। এসময় ওই সব বাসায় থাকা বাবুই পাখির ছোট ছোট ছানাগুলোও মেরে ফেলেন তারা। কিছু ছানা মেরে পাশের খালে ফেলে দেন।

 

স্থানীয় মারুফুল আজিজ বলেন, তালগাছ দুটিতে প্রায় দেড় শতাধিক বাবুই পাখির ছানা রয়েছে। ছানাগুলোর প্রায় সবগুলোই একেবারে ছোট। মাটিতে থাকা ২-৪টি যা জীবিত আছে তাদের কাছে গেলে খাবারের জন্য মুখ হা করে থাকে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সংরক্ষিত নারী সদস্য (মেম্বার) নিগার সুলতানা বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে জেনেছি। এটা দুঃখজনক।

উপজেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক একরামুল শিকদার বলেন, ৩-৪ জনে মিলে পাখির বাসাগুলো ভেঙে ফেলছে। বাসায় থাকা ছোট ছোট ছানাগুলো আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ও পানিতে ফেলে হত্যা করেছে। এমন ঘৃণ্য কাজ একজন মানুষ করতে পারে তা আমার ভাবতেই অবাক লাগে।

এ ব্যাপারে ইন্দুরকানী উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা হরিস চন্দ্র বোস বলেন, বাবুই পানি একটি বিলুপ্ত প্রজাতির পাখি। প্রাকৃতিক বৈচিত্র্য রক্ষার জন্য এর রক্ষণাবেক্ষণ করা আমাদের সবার কর্তব্য। এদের হত্যা করা একটি অমানবিক কাজ। হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া যেতে পারে।’

জানতে চাইলে ক্ষেতের মালিক হেমায়েত হোসেন মোল্লা বলেন, তার ৫০ বিঘা জমিতে বোরো ধানের চাষ করা হয়েছে। সেসব জমির ধান পাখির অত্যাচারে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তবে আমি ওইসব পাখির ছানা হত্যা করিনি। আমার ছোট ভাই কিছু বাসা ভেঙেছে। আমি এ খবর শুনে তাকে গালমন্দ করেছি। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা আমার সুনাম ক্ষুণ্ন করতে বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ