২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

এবার ঈদুল আজহায় বরিশালে থাকবে না পশুর হাটের ছড়াছড়ি

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

নিজস্ব প্রতিবেদক :: প্রাণঘাতী করোনার ভাইরাস সংক্রমণ থেকে সকলকে দূরে রাখাসহ সামাজিক সুরক্ষা বজায় রাখার লক্ষে আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহায় বরিশাল মহনগরী সহ জেলার ১০ উপজেলায় কোরবানীর পশুর হাটের সংক্ষা বিগত দিনের চেয়ে অর্ধেকে নিয়ে আসা হয়েছে। বিগত বছরগুলোতে কোরবানীকে কেন্দ্র করে বিভিন্নস্থানে স্থায়ী পশুর হাটের পাশাপাশি অস্থায়ী পশুর হাট বসানো হলেও এবার করোনার প্রাদুর্ভাবের কারনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কঠোর বিধি-নিষেধ আরোপ করা ও উদ্যোগক্তাদের আগ্রহ কম থাকায় এবার অস্থায়ী কোন পশুর হাট থাকবে না।

আগামী ২৫ই জুলাই থেকে ৫ দিনের জন্য শুধু মাত্র স্থানীয় পশুর হাটে পশু বেচা-বিক্রয় করা যাবে। বরিশাল (বিসিসি) হাট-বাজার শাখার পরিদর্শক মোঃ আবুল কালাম আজাদ বলেন, বরিশাল নগরীর বাঘিয়া ও হাটখোলা কসাইখানা এলাকায় স্থায়ী দুটি পশুর হাট রয়েছে। অন্যদিকে বিগত প্রতি বছর কোরবানী উপলক্ষে বিসিসি স্থায়ী পশুর হাট ছাড়া অস্থয়ী পশুর হাটের অনুমোদন দেয়া হত। এছাড়া গত বছরও বরিশালে ৪টি পশুর হাট বসেছি। আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহার এখনো দু’সপ্তাহ বাকি থাকলেও আজ শনিবার পর্যন্ত অস্থায়ী পশুর হাটের জন্য বিসিসিতে কেহ আবেদন করেনি। একারনে ঈদুল আজহার ৫দিন আগে নগরের অনুমোদিত দুটি স্থায়ী পশুর হাটে পশু বেচা-বিক্রয় করতে পারবে। সে হিসাব অনুযায়ী ২৫ই জুলাই থেকে নগরীতে শুরু হবে কোরবানীর পশু বিক্রি।

বিসিসি হাট পরিদর্শক আবুল কালাম আরো বলেন, তার আগে অস্থায়ী হাটের আবেদন পাওয়া গেলে অনুমোদনের বিষয়গুলো উর্ধ্বতোন কর্তৃপক্ষ বিবেচনা করবে। বর্তমান করোনা সংক্রমনের কারনে দুটি পশুর হাপ ইজারা দিতে না পারায় বিবিসি নিজেরাই হাট পরিচালনা করবে বলে জানিয়েছেন।

অপরদিকে বরিশাল জেলা প্রশাসন কার্যালয় সূত্র জানায় বরিশাল জেলার ১০ উপজেলায় এবার পশুর হাট বসবে ৩৫টি, গত বছর এর সংক্ষা ছিল ৬৬টি। জেলা ও উপজেলাগুলোতে স্থায়ী কোরবানীর পশুর হাট বসানোর জন্য অনুমতি দেয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে বরিশাল জেলা প্রশাসক এস.এম অজিয়র রহমান বলেন, এবছর কোরবানীর পশুর হাটে স্বাস্থ্যবিধিকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। যে কারনে বিগত সময়ের চেয়ে এবার কম সংক্ষক পশুর হাট বসবে। এছাড়া সব কয়টি পশুর হাটে স্বাস্থ্যবিধিকে নিশ্চিত করার জন্য স্ব স্ব উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বরিশাল বিভাগীয় প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ডা.কানাই লাল স্বর্ণকার জানান, বরিশালসহ বিভাগের প্রতিটি পশুর হাটে প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের বিশেষ ভেটেরিনারী মেডিকেল টিম মাঠে উপস্থিত থাকবে।

তিনি আরো বলেন, এসময়ে পশু হাটে যাতে করে কেহ রোগা পশু হাটে বিক্রি করতে না পারে সে ব্যাপারে মাঠে নজর রাখবে ভেটেরিনারী মেডিকেল টিম।

বরিশাল জেলা ও মহনগরের পশুর হাটগুলোর জন্য ইতি মধ্যে ৩৪টি ভেটেরিনারী মেডিকেল টিম গঠন করার হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিক করে বিভাগীয় প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা.কানাই লাল স্বর্ণকার।

সর্বশেষ