১৭ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
সপরিবারে মানবেতর জীবন যাপন করছেন ঐতিহ্যবাহী এ.কে স্কুলের প্রধান শিক্ষক চরমোনাই পীর, ভিপি নুর ও ড.কামালকে দালাল হিসেবে ব্যবহার করছে সরকার চরফ্যাসনে আলোকিত সকাল পত্রিকার ৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের অর্ধ বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত চরফ্যাসনে আলোকিত সকাল পত্রিকার ৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন খুলনার তরুণীকে কুয়াকাটায় আবাসিক হোটেলে আটকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১ শেখ রাসেল দিবস উদযাপন উপলক্ষে বাবুগঞ্জে প্রস্ততি সভা অনুষ্ঠিত বাবুগঞ্জে খাদ্য দিবস উপলক্ষে অলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সারাদেশে আরও ১৮৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি কোরআন সম্পর্কে অশালীন ও কুৎসিত পোষ্টঃ গৌরনদীতে ‘মহানন্দ বাড়ৈ’ আটক

করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ৪৪টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে : ডব্লিউএইচও

অনলাইন ডেস্ক :: করোনার ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট বিশ্বের ৪৪টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গত অক্টোবরে ভারতে করোনার বি.১.৬১৭ ভ্যারিয়েন্টটি প্রথম পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু এই মুহূর্তে তা বিশ্বের প্রায় অর্ধশতাধিক দেশে পাওয়ার তথ্য দিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

চলতি সপ্তাহেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা করোনার বি.১.৬১৭ ভ্যারিয়েন্টকে ‘উদ্বেগজনক’ বলে সতর্ক করেছে। ভারতের পরে এই ভাইরাসের প্রভাবে সবথেকে বেশি সংক্রমণ দেখা গেছে যুক্তরাজ্যে। অন্যান্য প্রজাতির তুলনায় করোনার এই ভ্যারিয়েন্ট অনেক দ্রুত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে সতর্ক করেছিল হু।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, গবেষণায় হু দেখেছে ভারতে এত দ্রুত সংক্রমণ ছড়ানোর পেছনে অন্যতম যে কারণ রয়েছে সেটি হলো এই নতুন ভ্যারিয়েন্টের ক্ষমতা। এই প্রজাতি অনেক দ্রুত ভাইরাস ছড়াতে সক্ষম। এমনকি করোনার টিকার মাধ্যমে যে অ্যান্টিবডি তৈরি হয় সেই অ্যান্টিবডিও অনেক সময় এই ভাইরাসকে রুখতে ব্যর্থ হয়। ফলে টিকা নেয়ার পরেও অনেক বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন।

সেই সঙ্গে আরও যে সব দেশে এই ভাইরাস পাওয়া গেছে সেসব দেশকেও সতর্ক করেছে হু। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই ভ্যারিয়েন্টটি প্রথম ভারতে পাওয়া গেলেও এখন বিশ্বের ৪৪টি দেশে তা ছড়িয়ে পড়েছে। এর থেকেই বোঝা যাচ্ছে এই ভাইরাস দ্রুত ছড়াচ্ছে। এই মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো এই প্রজাতির সংক্রমণ কমানো। তার জন্য প্রতিটি দেশকে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নিতে হবে। না হলে এই ভাইরাস আরও অনেক দেশে ছড়িয়ে পড়তে পারে।

সে ক্ষেত্রে তখন একে নিয়ন্ত্রণে আনা আরও কঠিন হয়ে পড়বে বলে আশঙ্কা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষজ্ঞদের।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ