২রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

কলাপাড়ায় দেবর কর্তৃক গৃহবধূ মারধরের অভিযোগ।

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় দেবর কর্তৃক ৩ সন্তানের জননী গৃহবধূ সুমা বেগম (৩০)
মারধর ও লাঞ্ছিতের শিকার হয়েছে । শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) শেষ বিকেলে উপজেলার চম্পাপুর ইউনিয়নের গোলবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটেছে। স্থানীয়রা ৯৯৯ এ কল করে পুলিশের সহায়তায় গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আহতের পুরো শরীরে রড দিয়ে পিটিয়ে রক্তাক্ত ও জখম করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের পশরবুনিয়া গ্রামের বাবুল মৃধার মেয়ে আহত সুমা বেগম। তাকে কয়েক বছর আগে পার্শ্ববর্তী চম্পাপুর ইউনিয়নের গোলবুনিয়া গ্রামের আনছার আকনের ছেলে মুন্না আকনের সাথে বিয়ে দেয়া হয়। সেই সংসারে তাদের তিনটি কন্যা সন্তান রয়েছে। ঘটনার দিন আহত সুমা তার দেবর সুমন (২৭) এর নিকট পাওনা টাকা চাইতে তাদের বাড়ি যান। তখন সুমন টাকা দিতে অস্বীকার জানায়। একপর্যায়ে সে আহত সুমার উপর ক্ষিপ্ত হয়ে ঘরে থাকা রড দিয়ে বেদরক মারধর করে। এতে সুমা ওই বাড়ির আঙ্গিনায় অঙ্গান হয়ে যায়। দেবর সুমন এতেও ক্ষ্যান্ত হয়নি। আহত সুমাকে ঘরে নিয়ে তালাবদ্ধ করে আটকে রাখে। পরে সুমার ঙ্গান ফিরলে অত্যান্ত কৌশলে সে বাড়ির বাহিরে এসে স্থানীয়দের জানায়। তারা ৯৯৯ এ কল করে পুলিশের পরামর্শে আহত সুমাকে কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এবিষয়ে কলাপাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জসিম বলেন, পারিবারিক কলহ নিয়ে মারধরের ঘটনা হয়েছে। তবে থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ