২০শে আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কাউখালীতে কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ভাবীকে পিটিয়ে জখম

 

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের কাউখালীতে ভাসুরের কুপ্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ভাবী রুবী খানম(২৬)কে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে ভাসুর ইমাম হোসেন (৪৫) । ওই হামলায় আহত গৃহবধু রুবী খানম বর্তমানে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন। ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার (২৬ জুলাই) বিকালে উপজেলার সয়না রঘুনাথপুর ইউনিয়নের হোগলা বেতকা গ্রামে।

আহত গৃহবধু রুবী খানমের স্বামী মো. সাইয়েদ আহম্মেদ জানান, তিনি ঢাকায় একটি ব সরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরী করেন। তারা স্ত্রী গ্রামের বাড়িতে বসবাস করে। তিনি বাড়িতে না থাকায় এই সুযোগে একই বাড়ির মৃত সোলায়মান হোসেনের পুত্র আপন চাচাতো ভাই ইমাম হোসেন তার স্ত্রীকে গত এক বছর ধরে বিভিন্ন সময় কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এ বিষয়টি তার স্ত্রী রুবী খানম তাকে জানালে তিনি ইমাম হোসেনের পরিবারের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ দেন। এতে ইমাম ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে ও তার স্ত্রীকে হুমকি দেয়। এর পরে গত রবিবার (২৬ জুলাই ) বিকেলে পারিবারিক তুচ্ছ বিষয়কে কেন্দ্র কেরে ঝগড়া বাধিয়ে রুবী খানমকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ইমাম। এ সময় ইমামের সাথে ছাব্বির ও মিজানুর নামে দুই জন ছিল।

অভিযোগের বিষয়ে ইমাম হোসেন জানান, কুপ্রস্তাব দেওয়ার বিষয়টি মিথ্যা।পারিবারিক বিষয়ে মহিলাদের মধ্যে ঝগড়া হয়েছে । তার স্ত্রী রুবী খানমকে মারধর করেছে এটা ঠিক। তার স্ত্রীকেও মারা হয়েছে। মারামারি থামাতে গিয়ে তাদের এক বোন আহত হয়ে বরিশালে চিকিৎসাধীন আছে।

কাউখালী থানার ওসি বনি আমিন জানান, রুবী খানমের একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। সে বিষয় আইনগত ব্যবস্থার গ্রহন করা হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ