১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কাউখালীতে পল্লী বিদ্যুত গ্রাহকদের কাছ থেকে রুপালী ব্যাংকের অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ

 

পিরোজপুর প্রতিনিধিঃ পিরোজপুরের কাউখালীতে পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকদের কাছ থেকে রুপালী ব্যাংক কাউখালী শাখা কর্তৃপক্ষের অতিরিক্ত টাকা গ্রহন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কাউখালী উপজেলার কিছু গ্রাহকদের জুলাই মাসের বিল পরিষদের শেষ তারিখ ছিল রবিবার ( ১ আগষ্ট)। ওই দিন সরকারি ঘোষনা ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় রবিবার ব্যাংক বন্ধ থাকায় তারা তাদের বিল দিতে পারেননি। ওই সব গ্রাহকরা সোমবার ব্যাংক খোলা থাকায় তারা বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করার জন্য ব্যাংকে গেলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জরিমানার টাকা সহ বিল জমা নেন। কিন্তু সরকারি ও পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির নির্দেশনা রয়েছে যদি বিল জমা দেয়ার শেষ তারিখ ব্যাংক বন্ধ থাকে তা হলে পরবর্তী ব্যাংক খোলার দিনই শেষ তারিখ হিসেবে গন্য হবে।ব্যাংক কর্তৃপক্ষ সেই নির্দেশনা অমান্য করে গ্রাহকদের কাছ থেকে জরিমানা সহ বিল জমা নেন।
বিল পরিশোধকারী গ্রাহক আব্দুর রাজ্জাক, ডাঃ আলী হোসেন , বজলুর রহমান বলেন,তাদের বিল পরিশোধের নির্ধারিত শেষ তারিখ ছিল রবিবার। ওই দিন ব্যাংক বন্ধ থাকায় বিল ব্যাংকে পরিশোধ করতে পারেনি।সোমবার ব্যাংক খোলা থাকায় তারা সহ অনেক গ্রাহক বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য সকালে ব্যাংকে বিল জমা দিতে গেলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জরিমানা সহ বিল গ্রহন করেন।জরিমানার অতিরিক্তি অর্থ ছাড়া কোন বিল গ্রহন করেনি ব্যাংক কর্তৃপক্ষ । এনিয়ে এক পর্যায়ে গ্রাহকদের সাথে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের বাকবিতন্ডতাও হয়।
পল্লী বিদ্যুৎতের গ্রাহক বজলুর রহমানের বিলের কাগজে দেখা যায় ১৩৪৩ টাকা বিল পরিশোধ করার কথা থাকলেও সেখানে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ ১৪০৬ টাকা বিল হিসেবে নিয়েছেন।

এ বিষয়ে পিরোজপুর পল্লী বিদ্যুৎতের এজিএম অর্থ রাজু আহম্মেদ বলেন,সরকারি নির্দেশনায় ব্যাংক বন্ধ থাকলে ব্যাংক খোলার তারিখেই জরিমানা ছাড়া বিল পরিশোধে শেষ তারিখ হিসাবে গন্য হইবে। ব্যাংক যদি এর ব্যতিক্রম করে তাহলে সেটা অবৈধ।

এ ব্যাপারে রূপালী ব্যাংক কাউখালী শাখার ম্যানেজার মাহামুদুল হোসাইন জানান, না বুঝে অতিরিক্তি অর্থ গ্রহন করা হয়েছে গ্রাহকরা ব্যাংকে আসলে তা ফেরত দেওয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ