২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

কুয়াকাটায় অনুমোদনহীন দুই আবাসিক হোটেলেকে জরিমানা

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

কুয়াকাটা হোটেল মোটেলের বিভাগীয় কমিশনারে কোন অনুমোদন না থাকায় দুইটি আবাসিক হোটেলকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন।
জানা যাকুয়াকাটা হোটেল মোটেলের বিভাগীয় কমিশনারে কোন অনুমোদন না থাকায় দুইটি আবাসিক হোটেলকে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন।
জানা যায়, পর্রযটন নগরী কুয়াকাটা প্রায় দুই শতাধিক হোটেল মোটেল থাকলেও তার মধ্যে নামে মাত্র কয়েকটি অনুমোদন হলেও অধিকাংশ আবাসীক হোটেলের ভবন নির্মাণ করার কোন অনুমোদন নেই। যার কারণে আজ বিকেল ৪ টার দিকে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে আবাসিক হোটেল আমির হামজা ৪০ হাজার ও অপরটি নির্মানাধীন নাইস লুক ৩০ হাজার এই দুটি আবাসিক হোটেলকে মোট ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
এ সময় অনন্য চলমান নির্মানাধীন কয়েকটি হোটেলের কাজ বন্ধ করেদেন।
এবিষয়ে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের জানান, পর্যটন নগরী কুয়াকাটা মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী হোটেল মোটেলের কাজ ধরার আগে বিভাগীয় কমিশনার স্যারের কাছ থেকে অনুমোদন প্রয়োজন হয়। এইসব হোটেলে না থাকার কারণে প্রাথমিকভাবে তাদেরকে এ জরিমানা করা হয়েছে । পরবর্তীতেও আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবেয়, পর্রযটন নগরী কুয়াকাটা প্রায় দুই শতাধিক হোটেল মোটেল থাকলেও তার মধ্যে নামে মাত্র কয়েকটি অনুমোদন হলেও অধিকাংশ আবাসীক হোটেলের ভবন নির্মাণ করার কোন অনুমোদন নেই। যার কারণে আজ বিকেল ৪ টার দিকে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে আবাসিক হোটেল আমির হামজা ৪০ হাজার ও অপরটি নির্মানাধীন নাইস লুক ৩০ হাজার এই দুটি আবাসিক হোটেলকে মোট ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
এ সময় অনন্য চলমান নির্মানাধীন কয়েকটি হোটেলের কাজ বন্ধ করেদেন।
এবিষয়ে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের জানান, পর্যটন নগরী কুয়াকাটা মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী হোটেল মোটেলের কাজ ধরার আগে বিভাগীয় কমিশনার স্যারের কাছ থেকে অনুমোদন প্রয়োজন হয়। এইসব হোটেলে না থাকার কারণে প্রাথমিকভাবে তাদেরকে এ জরিমানা করা হয়েছে । পরবর্তীতেও আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে

সর্বশেষ