২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশালে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩ রাঙাবালীতে ইয়াবাসহ আটক-১ ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে আমতলীতে গরমে মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে নারীর মৃত্যু বরিশালে পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ বন্ধের দাবি রাজাপুরে শিক্ষার্থীদের অনুদানের বরাদ্দ ৫ হাজার, কিন্তু পেয়েছে ৩ হাজার! বরিশালে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা বেশি থাকায় বেড়েছে শিশু শ্রমের হার নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয়ার অভিযোগ সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ প্রদান ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ শিক্ষার্থীরা পেল ৩ হাজার রাজাপুরের সোনারগাঁও স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বি...

গলাচিপায় তরমুজ ও আলু চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষীরা

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :
পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলায় আমন ধান উঠার সাথে সাথে তরমুজ ও আলু চাষীদের ব্যস্ততা সারা উপজেলায় লক্ষ্য করা গেছে। গলাচিপা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর কর্তৃক তথ্য মতে, গলাচিপা উপজেলায় তরমুজচাষে ৬ হাজার ৫০০ হেক্টর ও আলু চাষে ৩৫২ হেক্টও জমিতে আবাদের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারন করা হয়েছে। এতে তরমুজউৎপাদনে হেক্টরপ্রতি ৫০ টন, উপজেলায়উৎপাদনের লক্ষ্য মাত্রানির্ধারনকরাহয়েছে মোট ৩ লক্ষ ২৫ হাজারটন। আরআলুচাষে হেক্টরপ্রতিউৎপাদনের লক্ষ্য মাত্রানির্ধারনকরাহয়েছে ৩০ টন, উপজেলায়উৎপাদনের লক্ষ্য মাত্রানির্ধারনকরাহয়েছে ১২ হাজারটন। যদি কোনপ্রকারপ্রাকৃতিকদূর্যোগকবলিতনাহয়তাহলে লক্ষ্য মাত্রার চেয়ে বেশীউৎপাদনের সম্ভাবনাআছেবলে কৃষিঅধিদপ্তরসূত্রেজানা গেছে। তরমুজপ্রতি কেজি ১০ টাকাহারেহিসাবকরলে ৩২৫ কোটিটাকাবিক্রয়মূল্য দাড়াবে। আরআলুপ্রতি কেজি ১০ টাকাধরেহিসাবকরলে ১২ কোটিটাকাবিক্রয়মূল্য দাড়াবে। তরমুজচাষেখরচধরাহয়েছেপ্রতি হেক্টরে ২ লক্ষ ৩০ হাজারটাকা। উপজেলায় মোটচাষেখরচহবে ১৪৯ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। প্রতি হেক্টরে বিক্রীমূল্য ৫ লক্ষ টাকা। তরমুজচাষে মোটলাভহওয়ার সম্ভাবনা ১৭৫ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। উপজেলায়আলুচাষে মোটখরচহবে ৮ কোটিটাকা। প্রতি হেক্টরে বিক্রয়মূল্য ৩ লক্ষ টাকা। আলুচাষে মোটলাভহওয়ার সম্ভাবনা ৪ কোটিটাকা। তরমুজ ও আলুচাষেলাভহওয়ার সম্ভাবনা ১৭৯ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। বোয়ালিয়ার এক তরমুজচাষীঅটল চন্দ্র পালবলেন, আমি ১ হেক্টরজমিতেতরমুজচাষকরেছিআমার এতে খরচহবে ২ লক্ষ ৩০ হাজারটাকা। প্রাকৃতিক দূর্যোগেরকারণে কোনপ্রকার ক্ষতিনাহলে ৫ লক্ষ টাকারউপরেবিক্রয়করতেপারবোবলেআশারাখি। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষিকর্মকর্তা এ আরএমসাইফুল্লাহ্বলেন, আমনধানউঠার সাথে সাথে তরমুজও আলুচাষীরাখুব দ্রুতচাষাবাদ শুরুকরেন। চাষেরব্যাপারেসঠিকধারনা ও পরামর্শ দেওয়ারজন্য প্রতিইউনিয়নেসহকারী কৃষিকর্মকর্তারাসর্বদাতৎপররয়েছেন। যদি কোনপ্রকারপ্রাকৃতিক দূর্যোগনাহয়তাহলে যে লক্ষ্যমাত্রাধার্য্য করাহয়েছেতার চেয়েওঅধিকফলনেরআশা কৃষকদের।

সর্বশেষ