২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশালে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩ রাঙাবালীতে ইয়াবাসহ আটক-১ ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে আমতলীতে গরমে মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে নারীর মৃত্যু বরিশালে পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ বন্ধের দাবি রাজাপুরে শিক্ষার্থীদের অনুদানের বরাদ্দ ৫ হাজার, কিন্তু পেয়েছে ৩ হাজার! বরিশালে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা বেশি থাকায় বেড়েছে শিশু শ্রমের হার নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয়ার অভিযোগ সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ প্রদান ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ শিক্ষার্থীরা পেল ৩ হাজার রাজাপুরের সোনারগাঁও স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বি...

গলাচিপায় মিথ্যা রাজাকার পুত্র বলে প্রচার করায় কোটি টাকার মানহানী মামলা

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

তারিখঃ ৬ ডিসেম্বর ২০২২

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর গলাচিপায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতাকে মিথ্যা রাজাকার পুত্র বলে এলাকায় প্রচার করায় কোটি টাকার মানহানী মামলা হয়েছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। উপজেলার ডাকুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ গাজী (৬৪) সোমবার গলাচিপা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বাদী হয়ে একই এলাকার গাজী মস্তফা কামাল (৬৬), মো. হাদী গাজী (৫০), মো. জালাল উদ্দিন গাজীসহ (৭০) মোট ১৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলাটি দায়ের করেন। আদালতের বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে গলাচিপা থানার অফিসার ইন চার্জকে (ওসি) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন। মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ১১ নভেম্বর পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি/সম্পাদক বরবরে ডাকুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ গাজীকে রাজাকার পুত্র উল্লেখ করে তাকে অবিলম্বে সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে অপসারণের দাবি করে একই এলাকার গাজী মস্তফা কামালসহ উপরোল্লেখিত সকল আসামিগণ একটি লিখিত অভিযোগপত্র দায়ের করেন। অভিযোগপত্রের সঙ্গে আসামিগণ ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধকালীন যুদ্ধাপরাধীদের গলাচিপা উপজেলার একটি তালিকা দাখিল করেন। যা আসামিগণ জালজালিয়াতির মাধ্যমে সৃষ্টি করেছেন। উক্ত তালিকার ৩৮ নম্বরে প্রকৃত রাজাকার শাহজাহান সিকদারের নাম এডিট করে আসামিগণ বাদীর পিতার নাম প্রতিস্থাপন করেছেন এবং উক্ত তালিকায় তৎকালীন ইউএনও উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের স্বাক্ষর ও সীল স্ক্যান করে জালিয়াতির মাধ্যমে আসামিগণ ব্যবহার করেছেন। এ ব্যাপারে মো. হানিফ গাজী বলেন, মস্তফা গাজীসহ সকল আসামিগণের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে জমিজমা সংক্রান্ত আমাদের পারিবারিক বিরোধ চলছিল। মস্তফা গাজী বিএনপি থেকে এসে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশ করে আমাকে মিথ্যা রাজাকার পুত্র বলে এলাকায় প্রচারণা চালিয়ে আমার সম্মানহানী করেছে।

সর্বশেষ