২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

গলাচিপায় সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির মাসিক সভা

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি
পটুয়াখালীর গলাচিপায় সরকারি পর্যায়ে সারের বাজার দর নিয়ন্ত্রণ, প্রতি মাসে বরাদ্ধকৃত সার উত্তোলণ, বিক্রয় কেন্দ্র, ইউনিয়ন পর্যায়ে সার উত্তোলণ, সরবরাহ, নির্ধারিত মূল্য তালিকাসহ আমন মৌসুমে ইউরিয়া সারের অতিরিক্ত বরাদ্ধ বিষয়ে সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার বিকাল সাড়ে ৫টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে উপজেলা সার মনিটরিং কমিটি ও নিয়োগপ্রাপ্ত সার ডিলারদের নিয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উপজেলা সার ও বীজ মনিটরিং কমিটির সদস্য সচিব উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আরজু আক্তারের সঞ্চালনায় সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত) মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন গলাচিপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এমআর শওকত আনোয়ার ইসলাম, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. মাহাবুব হাসান শিবলী, উপজেলা ভ্যাটেনারি প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ও বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত বিসিআইসির সার ডিলাররা।
এসময় বাংলাদেশ ফার্টিলাইজার এসোসিয়েশন (বিএফএ) উপজেলা কমিটির সভাপতি মো. নাসির উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, পূর্বে পটুয়াখালী বাফার গোডাউন থেকে উপজেলা পর্যায়ে সার সরবরাহ করা হত। বর্তমানে পটুয়াখালীর বাফার গোডাউন না থাকায় শতকরা পঞ্চাশ ভাগ বরিশাল বাফার গুদাম ও পঞ্চাশ ভাগ চিটাগং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার রাংগাদিয়া মিল থেকে সরবরাহ করা হয়। উল্লেখ্য যে, ২০০৯ সনের নীতিমালা অনুযায়ী লভ্যাংশ ও পরিবহন খরচসহ একশত টাকা ধার্য করা হয়েছিল। বিগত ১৩ বছরে তৈলের দাম, পরিবহন খরচ, নিত্যপণ্যসহ দফায় দফায় বৃদ্ধি পেলেও সার ডিলারদের পরিবহন খরচ বিবেচনায় আনা হয়নি। চিটাগং থেকে পটুয়াখালীর গলাচিপায় ট্রাকযোগে প্রতি বস্তার ভাড়া ১৫০ টাকা এবং উপকূলীয় প্রত্যন্ত অঞ্চল চরকাজল, চরবিশ্বাস ইউনিয়ন ও রাঙ্গাবালী উপজেলায় লোড আনলোড ট্রলার ভাড়া ও ঘাট ইজারাসহ আরও ৭০ টাকা খরচ হয়। এমতাবস্তায় ডিলারদের প্রতি বস্তায় ১০০-১২০ টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে। তাই অনতি বিলম্বে পটুয়াখালীতে বাফার গুদামসহ জেলা ওয়ারি পরিবহন খরচ আমলে নিয়ে বিবেচনার জন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি সার ডিলাররা জোর দাবি জানান।
সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মহিউদ্দিন আল হেলাল ২০০৯ সালের নীতিমালা অনুযায়ী ব্যবসা পরিচালনার জন্য ডিলারদের নির্দেশনা প্রদান করেন এবং ডিলারদের পরিবহন খরচ সংক্রান্ত বিষয়টি আমলে নিয়ে সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশ আকারে প্রেরণ করা হবে বলে ডিলারদের আশ্বস্ত করেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ