২৩শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

গলাচিপায় হঠাৎ বেড়ে গেছে ডায়রিয়ার প্রকোপ

তারিখঃ ০৭ এপ্রিল ২০২১

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর গলাচিপায় বৈরী আবহাওয়ার কারণে ব্যাপক হারে ডায়রিয়াজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন শিশুসহ বৃদ্ধরা। হাসপাতালের বেড ছাড়াও মেঝেতে জায়গা দেওয়ার সংকুলান হচ্ছে না রোগীদের। সরেজমিনে গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে, শিশুসহ বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন। বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধদের সংখ্যাই বেশি। প্রাকৃতিক বৈরী আবহাওয়ার কারণে প্রচ- গরম ও ঠা-ার মিশ্র পরিবেশ সৃষ্টির ফলে ডায়রিয়ার প্রকোপ বাড়ছে। ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের বেড ছাড়া মেঝেতে জায়গার সংকুলান হচ্ছে না। কর্তব্যরত ডাক্তার ও নার্সরা রোগীদের চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। হঠাৎ করে রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় অনেক রোগী হাসপাতালের মেঝেতেই অবস্থান নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত ইয়াসিনের (৬ মাস) বাবা পুরামিন হাওলাদার জানান, হঠাৎ করে আমার ছেলের পাতলা পায়খানা ও বমি হওয়ায় তাৎক্ষণিকভাবে গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করতে আসি। কিন্তু হাসপাতালের বেড খালি না থাকায় সে জন্য আমার ছেলেকে নিয়ে মেঝেতে আছি। কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. শাহরিয়ার জানান, অন্যান্য রোগীদের চেয়ে ডায়রিয়াজনিত রোগীর সংখ্যা অনেক বেশি হওয়ায় চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। গতকাল এক দিনেই ৮ জন ডায়রিয়ার রোগী ভর্তি হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. মনিরুল ইসলাম জানান, এ সময় ভ্যাপসা গরম আবহাওয়াজনিত কারণে ডায়রিয়ার প্রকোপ একটু বেশি থাকে। এছাড়া তরমুজ খাওয়ার কারণেও ডায়রিয়া হয়ে থাকে পারে। হাসপাতালে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর চাপের কারণে খাবার স্যালাইন ও ভ্যাইনে পুশ করা স্যালাইন কয়েকবার এনেছি। ঠিকমত চিকিৎসা সেবা দিতে পারলে ২-৩ দিনের মধ্যে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগী পুরোপুরি সুস্থ হওয়া সম্ভব। তিনি আরও জানান গত এক সপ্তাহে ৪৭ জন ডায়রিয়ার রোগী ভর্তি হয়েছে।

০১৭২৪১৪০৩৩৭

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ