২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
কলাপাড়ায় কাঁচা বাজার সড়ানো হয়নি উন্মুক্ত স্থানে ভোলায় লকডাউনে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে মাঠে রেড ক্রিসেন্ট উজিরপুরে কথিত চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় নিখিল নামের এক যুবকের মৃত্যু ঈদের ৫ ম দিন এটিএন বাংলায় সামিনা - সিদ্দিকের 'মানবিক কসাই' কাজীরহাটে ডিবির অভিযানে ইয়াবা সহ মাদককারবারী আটক পরামর্শঃ জমির রেকর্ড বা খতিয়ানের ভুল সংশোধনের পদ্ধতি বরিশালে হাতুড়ে ডাক্তারের অপচিকিৎসায় যুবকের মৃত্যূ উজিরপুরের হারতায় এক সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যূ বরিশাল সিটি করপোরেশনের স্টিকার লাগিয়ে যাত্রী পরিবহণ সরকারি নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জীবননগরে মোবাইল কোর্ট অব্যাহত

গৌরনদীতে গভীর রাতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে যুবককে তুলে নিয়ে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের সিংগা গ্রামে সোমবার রাত দেড়টায় এক যুবককে অপহরণ করে মুঠোফোনে মুক্তিপন দাবি করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অপহরণকারীদের দাবির আংশিক পরিশোধ করলে মঙ্গলবার সকালে সাদা প্রাইভেটকার করে এসে চন্দ্রহার বাজারে ফেলে যায় যুবক শাহাদাত হোসেনকে (৩৭) । হাতুড়ি দিয়ে পিটেয়ে গুরুতরভাবে আহত করায় অপহৃতকে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অপহৃতার স্ত্রী ফাতেমা ইয়াসমিন গৌরনদী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

অপহৃত যুবকের স্ত্রী ফাতেমা ইয়াসমিন জানান, প্রতিদিনের ন্যায় স্বামী সন্তান নিয়ে নিজ বসত ঘরে ঘুমিয়ে ছিলেন। রাত আনুমানিক দেড়টার দিকে ঘরের দরজা ধাক্কাধাক্কি করলে পরিচয় জানতে চান। এ সময় বাহির থেকে ডিবি পরিচয় দিয়ে দরজা খুলতে বলেন। দরজা খুলে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ৫ জন ব্যক্তি ঘরের মধ্যে ঢুকে স্বামী শাহাদাতকে মারধর করতে থাকে এবং একপর্যায়ে তাকে হাতে হ্যান্ডকাপ পড়িয়ে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে যায়।

তিনি (ফাতেমা ) অভিযোগ করে বলেন, ওকে নিয়ে যাওয়ার পরে রাত সোয়া ২টার দিকে আমি চন্দ্রহার বাজারে গিয়ে বাজারের দোকানদের জাগিয়ে ঘটনাটি বলি। এরই মধ্যে রাত আনুমানিক পোনে তিনটার দিকে (০১৮৯০-৭৯৭৮৯০) নম্বর থেকে স্বামী শাহাদাত হোসেনের নম্বরে ফোন করে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে রাতের মধ্যে টাকা নিয়ে চন্দ্রহার বাজারের সেতুর কাছে থাকতে বলে। টাকা না দিলে স্বামীকে হত্যার হুমকি দেয়। এই রাতে এত টাকা কোথায় পাবো কাকুতি মিনতি করলে ফোন কেটে দেন। আমি ও আমার দেবর নাসির উদ্দিন (২৫) ঘরে থাকা ২৫ হাজার টাকা আমার গলার চেইন ও কামের দুল যার মূল্য (১লাখ ৬০ হাজার) দেওয়া হয়। পরে ভোর ৬টার দিকে গাড়িযোগে এসে বাজারে লোকজনের উপস্থিতিতে প্রকাশ্যে গাড়ি থেকে আহত অবস্থায় স্বামী শাহাদাতকে ফেলে যায়। আমরা তাকে উদ্ধার করে গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

গৌরনদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন শাহাদাত হোসেন বলেন, ওরা আমাকে গাড়িতে তুলেই চোখ মুখ বেধে ফেলে এবং হাতুড়ি দিয়ে পেটাতে থাকে। গাড়ির মধ্যে আমাকে ৩/৪ ঘণ্টা নির্যাতন করে।

এ প্রসঙ্গে গৌরনদী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আফজাল হোসেন বলেন, ভিকটিমের স্ত্রী ফাতেমা ইয়াসমিন বাদী হয়ে মঙ্গলবার বিকেলে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনী য়ব্যবস্থা নেওযা হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ