২৬শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

গৌরনদীতে জনগুরুত্বপূর্ণ সেতু দখল করে আ’লীগ নেতার নির্বাচনী কার্যালয়!

গৌরনদী প্রতিনিধি :: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বরিশালের গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী ও বাটাজোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল (৪৭) চলাচলের জনগুরুত্বপূর্ণ সেতু দখল করে তার ওপর স্থায়ী নির্বাচনী কার্যালয় নির্মাণ করে প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সেতুর ওপর নির্বাচনী কার্যালয় স্থাপনের ফলে গত ১০ দিন ধরে সড়কে রিকশা-ভ্যানসহ ক্ষুদ্র যানবাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতার ভয়ে কেই মুখ খুলছে না। বিষয়টি স্থানীয় থানা পুলিশ ও গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরেও কোন ব্যবস্থা নেননি কর্তৃপক্ষ।

সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয় লোকজন ও ভুক্তভোগীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নে নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। ওই ইউনিয়নের ৫নং ওয়াডের্র সদস্য পদে প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল ও মোঃ হোসেন আলী । জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কে সরকারি সেতু বন্ধ করে দিয়ে তার ওপর স্থায়ী নির্বাচনী কার্যালয় স্থাপন করে এলাকায় ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি করেছেন বাটাজোর ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী ও বাটাজোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল (৪৭) (ফুটবল)।

স্থানীয়রা জানান, বাদামতলা-পশ্চিম চন্দ্রহার সড়কটি একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। ওই সড়ক দিয়ে ৩টি গ্রামে কয়েক হাজার মানুষ রিকশা-ভ্যানসহ ক্ষুদ্র যানবাহনে ইউনিয়ন সদর ও উপজেলা সদরের সঙ্গে যাতায়াত করে থাকে। সড়কের ওপর তাবু টাঙিয়ে চেয়ার টেবিল বসিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে নির্বাচনী অফিস স্থাপন করেছে প্রার্থী ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল। এলাকার লোকজন নির্বাচনী কার্যালয় নির্মানে নিষেধ করলে তা উপক্ষো প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতা ক্ষিতিষ চন্দ্র অফিস স্থাপন করেছে।

বিষয়টি নিয়ে গৌরনদী মডেল থানা ও গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেওয়ার পরেও কোন ব্যবস্থা নেননি।

ক্ষোভ প্রকাশ করে নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন ভোটার বলেন, জনসাধারণের যাতায়াত বন্ধ করে দিয়ে সেতুতে নির্বাচনী কার্যালয় স্থাপন শুধু স্বেচ্ছাচারিতাই নয়, নির্বাচনী আচরন বিধি লঙ্ঘন। ক্ষমতার জোর থাকার থাকরে ব্যবস্থা নিচ্ছেন না কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার সরেজিমনি গিয়ে দেখা গেছে, গৌরনদী উপজেলার বাদামতলা-পশ্চিম চন্দ্রহার সড়কের পশ্চিম চন্দ্রহার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন ওই ব্রিজের ওপর ত্রিফলা টাঙিয়ে ঘর বানিয়ে নির্বাচনী অফিস স্থাপন করেছে সদস্য প্রার্থী ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল (ফুটবল)। নির্বাচনী পোস্টার সাটিয়ে সাজ সজ্জা করে সাজানো হয়েছে কার্যালয়টি। বসানো হয়েছে প্রায় অর্ধশত চেয়ার । অফিস আড্ডা দিচ্ছে ফুটবল মার্কার ১০/১২ জন কর্মী সমর্থকরা। ফলে ওই সড়কে যাতায়াতকারী নারীরা যুবকদের ভিতর দিয়ে সেতু পার হতে অনেকেই বিব্রতবোধ করেন।

এ সময় অফিসে উপস্থিত লোকজনের কাছে জানতে চাইলে একাধিক কিশোর বলেন, যদি আমাদের সামেন দিয়ে কেউ যেতে দ্বিধাদ্বন্দ্ব করেন তার এখান দিয়ে যাতায়াত করার দরকার নাই।

একাধিক নারী অভিযোগ করে বলেন, সেতুর উপর নির্বাচনী অফিসে উঠতি বয়সী কিশোররা বসে থাকে মেয়েরা যাওয়া দিলে তারা নানান উত্যক্তমূলক কথা বলে।

প্রতিদ্বন্দ্বি সদস্য প্রার্থী মোঃ হোসেন আলী (মোরগ) অভিযোগ করে বলেন, সেতুর পূর্ব পাড়ে ভোটাদের সাথে যাতে আমি গণসংযোগ করতে না পাড়ি সেজন্য সন্ত্রাসী দের দিয়ে চেকপোস্ট বসিয়েছে। ওখান দিয়ে আমার কর্মীরা ভোটারদের সাথে প্রচার প্রচারণা চালাতে গেলে বাধা দেওয়া হয়। বিষয়টি উপজেলা নির্বাচন অফিসার মিজানুর রহমানকে জানানো হলেও তিনি কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না।

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে গৌরনদী উপজেলার বাটাজোর ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী ও বাটাজোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ক্ষিতিষ চন্দ্র পাল বলেন, বর্ষা মৌসুমে চারিদিকে কাঁদা হওয়ায় ব্রিজের ওপর অস্থায়ীভাবে কার্যালয় স্থাপন করে কর্মীদের বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে জনসাধারণের চলাচলে কোন সমস্যা হচ্ছে না। নারীদের চলাচল নিয়ে কিশোরকর্মীদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা নেই।

এ ব্যপারে গৌরনদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ মিজানুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এ ধরনের কোন ঘটনা আমার জানা নেই কিংবা কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (ওসিতদন্ত) মোঃ তৌহিদুজ্জামান বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে বিষয়টি শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়ে ব্রিজ থেকে নির্বাচনী অফিস অপসারণ করতে প্রার্থী ক্ষিতিষ চন্দ্র পালকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ