১৩ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

গৌরনদীতে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে আত্মগোপন, ৯ বছর পর যুবক উদ্ধার

মোঃ মাসুদ সরদার, গৌরনদী প্রতিনিধি :: নিজের পুত্রকে আত্মগোপনে রেখে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে অপহরন মামলা দায়েরের নয় বছর পর আত্মগোপনকারীকে উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাটি জেলার গৌরনদী উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামের।

সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে ঢাকার রায়েরবাগ এলাকা থেকে আত্মগোপনকারী রাসেল মৃধাকে (২৩) উদ্ধার করে মঙ্গলবার সকালে গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মিথ্যে অপহরন মামলায় দীর্ঘদিন কারাভোগ করা গৌরনদীর বাসুদেবপাড়া গ্রামের নোয়াব আলী মৃধার পুত্র এস রহমান মৃধা জানান, পাশ্ববর্তী নলচিড়া ইউনিয়নের কলাবাড়িয়া গ্রামের জালাল মৃধার সাথে তার পূর্ব বিরোধ চলে আসছে। এর জেরধরে জালাল মৃধার স্ত্রী মরিয়ম বেগম বাদি হয়ে ২০১২ সালের ৩ এপ্রিল বরিশাল আদালতে ১৪ জনকে আসামি করে অপহরনের অভিযোগ করেন।

অভিযোগে বিবাদীদের বিরুদ্ধে জালাল-মরিয়ম দম্পত্তির সপ্তম শ্রেনীতে পড়–য়া পুত্র রাসেল মৃধাকে (১৪) মারধর করে অপহরনের অভিযোগ আনা হয়। আদালত এ বিষয়ে গৌরনদী মডেল থানাকে মামলা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান করেন। এস রহমান আরও জানান, মামলার তৎকালীন তদন্ত কর্মকর্তা গৌরনদীর সরিকল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই মোঃ ফোরকান হাওলাদার বাদীর কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়ে ১৪জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ফলে মিথ্যে ওই মামলায় তাকে (এস রহমান) এবং তার পক্ষের লোকজনকে দীর্ঘদিন কারাভোগ করতে হয়েছে।

এস রহমান বলেন, দীর্ঘ নয় বছর পর সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) জানতে পারি মামলার বাদী মরিয়মের পুত্র রাসেল ঢাকার রায়েরবাগ এলাকায় আত্মগোপনে রয়েছে। পরবর্তীতে স্থানীয়দের সহায়তায় সেখান থেকে (ঢাকা রায়েরবাগ) রাসেলকে উদ্ধার করে মঙ্গলবার সকালে গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। রাসেল মৃধাকে উদ্ধার করে থানায় হস্তান্তরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন গৌরনদী মডেল থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ