৩০শে মে, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

গৌরনদীতে বসত ঘরে ও খড়কুটায় আগুন দেয়ার ঘটনায় তিনজন গ্রেফতার

গৌরনদী (বরিশাল) প্রতিনিধি :: বরিশালের গৌরনদী উপজেলার কটকস্থল গ্রামের কেরামত মাঝির বসতঘর ও খড়কুটার আগুন দেয়া ও গরুর পানির খাওয়ার পাত্রের মধ্যে বিষাক্ত জাতীয় দ্রব্য ফেলে রাখার ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতদের বুধবার দুুপরে বরিশাল অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করলে ধৃত আসামি সৈকত বেপারী ১৬৪ ধারায় বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। আদালত তাদেরকে কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরন করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকতার্ এসআই আরিফুল ইসলাম জানান, গত ৬ ও ৮ জুলাই রাতে কটকস্থল গ্রামের কেরামত মাঝির বসত ঘরে ও খরকুটায় দুবৃত্তরা কেরাসিন দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। বাড়ির লোকজন দেখতে পেয়ে ডাকচিৎকার দিলে এলাকাবাসি ও গৌরনদী ফায়ার সার্ফিসের লোকজন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় ৯ জুলাই কেরামত মাঝি বাদি হয়ে ৫ থেকে ৬ জন অজ্ঞাতনামা আসামি করে গৌরনদী মডেল থানার একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরর পর এসআই আরিফুল তদন্তকালে সন্দেহজনক ভাবে কটকস্থল গ্রামের স্বপন বেপারীর পুত্র সৈকত বেপারীকে (২০) আটক করে। সৈকতের স্বীকারোক্তি মোতাবেক একই গ্রামের হালান হাওলাদারের পুত্র আমিনুল জয় ও দেলোয়ার বেপারীর পুত্র তাইজুল ইসলামকে গ্রেফতার করে।

গৌরনদী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ তৌহিদুজ্জামান জানান, গ্রেফতারকৃতরা সকলে মাদক বিক্রেতা। গ্রেফতারকৃতদের ধারনা মাদক বিক্রির ব্যাপারে কেরামত ও তার ভাতিজা পুলিশের কাছে তাদের মাদক বিক্রির গোপন তথ্য সরবরাহ করত। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আসামিরা অগ্নিসংযোগ ও গরুর পানির খাওয়ার পাত্রের মধ্যে বিষাক্ত জাতীয় দ্রব্য ফেলে রাখে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ