২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

চাকরি দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ

ব্যাংকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক নারীকে (৩৫) বাসায় ডেকে এনে গণধর্ষণের অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে একজন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) কর্মচারী সনজিব কুমার দাস। আরেকজন তার সহযোগী আনিকা। ১ মার্চ রাতে সবুজবাগ থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেফতার করে। সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুরাদুল ইসলাম জানান, কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা এক নারীকে ব্যাংকে চাকরি দেওয়ার নাম করে ১৫ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ মাদারটেকের একটি বাসায় ডেকে আনেন সনজিব দাস। তার সঙ্গে রাসেল, জামাল, আজিজুর রহমান ও আনিকা নামে এক নারী ওই বাসায় ছিলেন। ওই বাসাতেই ওই নারীকে সনজিবসহ বাকিরা পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ১ মার্চ সবুজবাগ থানায় সনজিবকে প্রধান আসামি করে মোট পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ধর্ষণের শিকার ওই নারী।

পুলিশ জানিয়েছে, বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। সনজিবের বিরুদ্ধে খিলগাঁও থানায় আরও একটি ধর্ষণ মামলা রয়েছে বলেও জানা গেছে।

ধর্ষণের শিকার ওই নারী মামলার এজাহারে উল্লেখ করেন, পাঁচ বছর আগে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় তার। এরপর একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করে জীবিকা নির্বাহ করতেন। গত ১০ ফেব্রুয়ারি পূর্বপরিচিত সনজিবের সঙ্গে সাক্ষাৎ হলে কুশল বিনিময়ের সময় তিনি তার সন্ধানে ব্যাংকে ভালো চাকরি থাকার কথা জানান। পরে চাকরি দেওয়ার কথা বলে মাদারটেকের ওই বাসায় ডেকে নেন। একপর্যায়ে সেখানে উপস্থিত পুরুষ সদস্যরা তাকে ধর্ষণ করেন। আনিকা এ কাজে তাদের সহায়তা করেন। এ ঘটনা জানাজানি হলে সনজিব তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেন বলেও উল্লেখ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email