১লা মার্চ, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঝালকাঠিতে স্ত্রীর যৌতুক মামলায় পুলিশ কর্মকর্তা শ্রীঘরে ববিতে ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে বৃদ্ধি পেয়েছে ৫০টি আসন গলাচিপায় স্কুলের কমিটি নিয়ে তর্ক, সহকর্মীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ শিক্ষকের টানা দুই মাস মেঘনা ও তেতুলিয়া নদীর অভয়াশ্রমে মাছ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা গলাচিপায় শিক্ষকের হাতে শিক্ষক লাঞ্ছিত, তদন্তে কমিটি আমতলী পৌরসভার বাসস্ট্যান্ডে বাঁশের বেড়া, যাত্রীসেবা সড়কে বাউফলে প্রেমিক যুগলকে না পেয়ে প্রেমিকার বাবাকে মারধর দেশ ও ইসলাম রক্ষায় বৃহত্তর ঐক্যের বিকল্প নেই : চরমোনাই পীর নলছিটিতে ৫ কেজি গাঁজাসহ মাদক বিক্রেতা আটক বরিশালে বড়ই বিক্রেতাকে পেটালেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও তার সহযোগী

চুয়াডাঙ্গায় গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

এম.এ.আর.নয়ন, স্টাফ রিপোর্টার ।। চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী গ্রাম থেকে উর্মি খাতুন (২৫) নামের এক গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত উর্মি খাতুন উথলী গ্রামের বাঙাল পাড়ার জিয়াউর রহমান @ জিয়ার স্ত্রী। শুক্রবার (২৭শে আগস্ট) বেলা আনুমানিক ১২টার দিকে নিহতের ঘরের দরজা ভেঙে লাশটি উদ্ধার করে পরিবারের লোকজন।

স্থানীয় প্রতিবেশী ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী গ্রামের মোঃ রশিদ ওরফে ডেঙ্গরের ছেলে জিয়াউর রহমান @ জিয়ার সাথে আনুমানিক ৮-৯ বছর পূর্বে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার গোবরগাড়া গ্রামের জহুরুল হকের কন্যা উর্মি খাতুনের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। সাংসারিক জীবনে তারা ছিলেন নিঃসন্তান। বিয়ের পর সংসারে স্বাচ্ছল্য আনতে জিয়া দীর্ঘদিন মালয়েশিয়াতে ছিলেন। বিগত কিছুদিন পূর্বে তিনি বিদেশ থেকে বাড়িতে এসে ইজিবাইক কিনে দেশেই উপার্জন করতে শুরু করেন।

এমনিভাবেই চলছিলো তাদের সংসার। শুক্রবার সকালে তারা স্বামী-স্ত্রী উভয় মিলে ইজিবাইকটি ধুয়ে-মুছে পরিষ্কার করার পর জিয়া ইজিবাইক নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে যায়। বেলা আনুমানিক ১২টার দিকে জিয়া নামাজ আদায় করতে যাওয়ার জন্য বাড়িতে এসে তার স্ত্রী উর্মিকে ডাকাডাকি করে না পেয়ে জানালা দিয়ে ঘরের মধ্যে উঁকি মেরে তার স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে থাকতে দেখে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন। তার চিৎকার শুনে আত্মীয়-স্বজন ও পাড়া প্রতিবেশিরা ছুটে এসে একই দৃশ্য দেখতে পান। পরবর্তীতে সাপল দিয়ে ঘরের দরজা ভেঙে উর্মির লাশটি উদ্ধার করা হয়।

খবর দেওয়া হয় উর্মির তার পিতার বাড়ির লোকজন ও জীবননগর থানা পুলিশের কাছে। খবর পেয়ে পিতার বাড়ির লোকজন ও জীবননগর থানা পুলিশ দ্রুত জিয়ার বাড়িতে উপস্থিত হন। এ সময় উর্মির পিতার বাড়ির লোকজন অভিযোগ করে বলেন উর্মিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। নিহতের শরীরে আঘাতের তেমন কোন গুরুতর চিহ্ন দেখতে পাওয়া যায়নি। তবে নিঃসন্তান হওয়ার কারণে নিহত উর্মির সাথে স্বামী ছাড়া তার শ্বশুরবাড়ির অন্য লোকজনের সাথে সম্পর্ক তেমন একটা ভালো ছিলোনা। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশটি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। ময়না তদন্তের পর জানা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা।

সর্বশেষ