১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশালে বাস-মোটরসাইকেল মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ কিশোর নিহত পটুয়াখালীতে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানে ঢুকে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের ২৯তম মৃত্যুবার্ষিকীতে এসটিএস হাসপাতালের ২ দিন ব্যাপী ফ্রী মেডিকেল ক্যাম্প করোনায় আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১ হাজার ৯০৭ ভোলায় মহানবী (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি, পূজা পরিষদের সভাপতি আটক ইন্দুরকানীতে নয় বছরেও সেতুতে নেই ল্যাম্পপোষ্ট, পথচারীদের ভোগান্তি পটুয়াখালীর চার সেতুতে লাইট পোস্টে আলো নেই মেহেন্দিগঞ্জে নৌ-পুলিশের অভিযানে কোটি টাকার অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার অধ্যক্ষ নজরুল ইসলামের কবরে চরফ্যাসন প্রেসক্লাবের শ্রদ্ধাঞ্জলি চরফ্যাশনে ইউনিয়ন সংরক্ষণ কমিটি গঠনে পরামর্শ সভা

জাকের পার্টি ছাত্র ফ্রন্ট এর ২৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও প্রাসঙ্গিক দু’টি কথা

: মোহাম্মদ ফয়সাল বিন শফিক (সনি):

১৯৯৬ সালের পবিত্র মহেন্দ্রক্ষনে জাকের পার্টির অন্যতম শক্তিশালী সহযোগী সংগঠনের আত্মপ্রকাশ ঘটে, বিশ্বওলী খাজাবাবা ফরিদপুরী (কুঃছেঃআঃ) কেবলাজান ছাহেবের হস্ত মোবারকে । তেঁনার দিকনির্দেশনায় মুসলিম বিশ্বের অবিসংবাদিত নেতা ,হিজবুল্লাহ্‌র মহা ঈমাম জাকের পার্টির মহামান্য চেয়ারম্যান পীরজাদা আলহাজ্ব খাজা মোস্তফা আমীর ফয়সল মুজাদ্দেদী ছাহেবের আনুগত্যকারীর সমন্বয়ে দেশব্যাপী ছড়িয়ে পরেছিল এক মহা মিশন। দেশব্যাপী জাকের পার্টির পতাকাতলে সমবেত করার মানষে পথে প্রান্তরে অবিরাম ছুটে বেড়িয়েছে। গ্রামের কোন মেঠো পথে কিংবা চা স্টলে আড্ডার ছ¦লে চলে দাওয়াতের কার্যক্রম । প্রথম সফলতা আসতে সময় নেয়নি । ফরিদপুরের সদরপুরে ভিপিসহ প্যানেল এর বিজয় এর গতিকে পূর্ণ মাত্রা যোগ করে। আসতে থাকে একের পর এক ছাত্র ফ্রন্টের দেশব্যাপী কমিটি। শুরু হয় কলেজ বিশ্ব বিদ্যালয় গুলোর কমিটি গঠন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে দেশের জনপ্রিয় শিক্ষালয় গুলোতে এক এক করে কমিটির অনুমোদন। আদর্শ যেখানে মুখ্য সেখানে কোন বাঁধাই রুখতে পারে না । তথাকথিত ছাত্র রাজনীতির বাহিরে থেকে স্রােতের বিপরীতে সাঁতার দেয়া কষ্টকর বটে। ঐ যে বলেছিলাম ঐশ্বরিক শক্তির কাছে জাগতিক শক্তি সর্বক্ষেত্রে পরাজয় বরণ করে।। মূল কথায় ফিরে আসি। আজ ২৭ জুন ২০২১ইং ।। জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের আজ রজতজয়ন্তী । অর্থাৎ ২৫ বছর পূর্তি । জাকের পার্টি ছাত্র ফ্রন্ট আজ এমন একজনের নেতৃত্বে , তাঁর পরিচয় আজ প্রথমে বলে রাখি। ড. খাজা সায়েম আমীর ফয়সল মুজাদ্দেদী । তিঁনি বিশ্বওলী খাজাবাবা ফরিদপুরী (কুঃছেঃআঃ) ছাহেবের আদরের পৌত্র। তিঁনি জাকের পার্টির মহামান্য চেয়ারম্যান মহোদয়ের সুযোগ্য পুত্র। সর্বোপরি জাকের পার্টি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের মহাসম্মানীত সভাপতি। কিছু দিন পূর্বে তিঁনি লন্ডনের বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় (ইউসিএল) থেকে সর্বকনিষ্ঠ হিসেবে পিএইচডি (অর্থনীতি) ডিগ্রি অর্জন করেন। তিঁনি একটি বই লিখেন ”হাউ মাচ ইস টু মাচ” শিরোনামে। বর্তমানে তিঁনি একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন । সিপিএউচডি গ্রুপ অব কোম্পানীজ নামে একটি দ্রুতবর্ধণশীল শিল্পপ্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন গত আড়াই বছর পূর্বে। গ্রুপ অব কোম্পানীজ এর প্রথমে সিপিএইচডি আর্য়ূবেদিক লিঃ, পরে সিপিএইডি কনজুমার এন্ড হাইসহোল্ড লিঃ নামে গড়ে তুলেন। এ বছরের শেষের দিকে সিপিএইচডি ফার্মাসিউটিক্যাল লিঃ নামে আরো একটি প্রতিষ্ঠান উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। প্রতিষ্ঠানটি উদ্বোধনের পরের মাসেই আড়াই হাজার বেকারের কর্মসংস্থান হলেও খুব দ্রুত ৫ হাজার বেকারের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করেছেন অবলীলায়। যা দিনে দিনে সফলতার দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দ্রুত গতিতে । তেঁনার নিরলস পরিশ্রম চোখে পড়ার মতো । দিনের পর দিন ভার্চুয়াল মিটিং দেশের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তকে একটি ভিডিও কনফারেন্স মাধ্যমে যুক্ত করে প্রতিদিন ৫০ হাজার বেকারকে তাদের নিজের পায়ে দাড়ানোর অনুপ্রেরণায় তিঁনি আজ অন্য এক উচ্চতায়। বিশেষ করে কয়েকটি বেসরকারী টিভি চ্যানেল এ গত কয়দিনে তেঁনার বিশ্লেষনধর্মী এবং যুক্তি সংগত সাক্ষাৎকার দেশ ও জাতীকে নতুন করে চিন্তা করার খোরাক যুগিয়েছে। বিশেষ মহলে অর্থনৈতিক মুক্তির কর্মসূচী দিয়ে হয়েছেন সমাদৃত ও প্রশংসিত। পাঠকের হয়তো মনে হতে পারে, ছাত্রফ্রন্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনায় ড. সায়েম আমীর ফয়সল ছাহেরকে কেন নিয়ে আসলাম। অপ্রাসঙ্গিক মনে হতে পারে !!! বিষয়টি মোটেও অপ্রাসঙ্গিক নয় বরং বহুমাত্রায় প্রাসঙ্গিক। ব্যাখ্যার প্রয়োজনীতা অনুভব করছি । আমাদের দেশে বাস্তবতায় বেকার একটি জাতীয় সমস্যা। দেশে প্রতিদিন শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। যেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকেও বলতে শুনেছি চাকরীর পেছনে না ঘুরে উদ্যোক্তা হবার চেষ্টা করতে। বিদেশে পড়াশুনা করা প্রকৃত দেশপ্রেমিক ড. সায়েম আমীর ফয়সল আগেই দেশের কথা ও শিক্ষিত জাতির বিপথগামীতার কথা চিন্তা করেই সিপিএইডির কার্যক্রমকে উদ্যোক্তা তৈরীর প্লাটফর্ম হিসেবে ঘোষনা দেন । মাত্র আড়াই হাজার টাকার বিনিময়ে একদম প্রান্তিক জনগোষ্টিকে এর সুফলতা সম্পর্কে অবগত করেন গ্রাম পর্যায়ে জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্টের নেতাকর্মীর মাধ্যমে ভিডিও কনফারেন্স এর মাধ্যমে। শুধু তাই নয়। কয়েক হাজার ছাত্রফ্রন্ট এর নেতৃবৃন্দকে হাতে কলমে শিক্ষা দিয়ে নিজ নিজ পরিবারে অর্থনৈতিক মুক্তির স্বাধ দিয়েছেন। সেই সাথে সুস্থধারার রাজনীতি অর্থাৎ কাংখিত ছাত্র রাজনীতি দিকে নিয়ে আসার প্রয়াসে সফলতা অর্জন করেছেন অবলীলায়। মানবিক মূল্যবোধকে করেছেন সম্মুন্বত। সেদিক থেকে তথাকথিত ছাত্র রাজনীতির বিপরীতে জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্ট। অস্ত্র কিংবা মাদক এর এই যুগে সকল অবিভাবক এর আশ্রয়স্থ এবং ভরসায় জায়গায় এনে দিয়েছেন এই মানবতার মুক্তির দিশারী । তাই তো বিশ্বওলী খাজাবাবা ফরিদপুরী (কুঃছেঃআঃ) ছাহেবের আদর্শ বাস্তবায়নে বদ্ধ পরিকর তিঁনি। ড. খাজা সায়েম আমীর ফয়সল আপঁনার জয় হোক। জাকের পার্টি ছাত্রফ্রন্ট এর সুযোগ্য নেতৃত্ব আপনার পবিত্র হাতে । জাকের পার্টির মহামান্য চেয়ারম্যান মহোদয় বলেছিলেন ২০১৮ সালে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে । মাথা থেকে পা পর্যন্ত পবিত্র করতে হবে। আপনার দিকেই জাতি আজ ধাবমান।আপনি তৃণমূলের ভিতকে অর্থনৈতিক ভবে শক্তিশালী করে আগামীর দিন গুলোকে পবিত্র করতে পারবেন। স্যালুট আপনার অবদানকে । আপনার অর্থনৈতিক মুক্তির কর্মসুচী সফল হোক।।। আমিন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ