সোমবার, ০৬ Jul ২০২০, ১১:৩৩ অপরাহ্ন

জাতীয় শোক দিবসে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এর ব্যতিক্রমী আয়োজন

জাতীয় শোক দিবসে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এর ব্যতিক্রমী আয়োজন

Print Friendly, PDF & Email

এ আল মামুন, বিনোদন প্রতিবেদক : গত বছর জাতীয় শোক দিবসকে ঘিরে অনেকগুলো কন্টেন্ট নির্মাণ করেছে দেশের অন্যতম শীর্ষ প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট। এরমধ্যে ছিল চলচ্চিত্রকার নুর মোহাম্মদ মনি পরিচালিত বিশেষ দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র জনক ও সন্তান। এবার জাতীয় শোক দিবসকে কেন্দ্র করে ব্যাপক কর্মপরিকল্পনা নিয়েছে ক্রাউন কর্তৃপক্ষ। প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে দেশের খ্যাতিমান নির্মাতাদের দিয়ে এক ডজনের বেশি নাটক নির্মাণ করে সেগুলো বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলকে সম্প্রচারের জন্যে ‘উপহার’ দিতে যাচ্ছে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট। জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নাটকের জন্য চ্যানেল থেকে কোন টাকা নিবে না। ‘উপহার’ হিসেবে নাটকগুলো প্রযোজনা করবে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট।

এ বিষয়ে ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এর ডেপুটি সিইও তাজুল ইসলাম বলেন, জাতির জনক ও তাঁর পরিবারের প্রতি গোটা জাতির আজন্মের ঋণ। সেই কৃতজ্ঞতার তাগিদেই আমরা প্রতি বছর বিভিন্ন ধরনের কন্টেন্ট প্রযোজনা করে আসছি। কিন্তু এবার করোনা সঙ্কটের ফলে টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর পক্ষে হয়তো বিশেষ নাটক নির্মাণ এবং এগুলোর জন্যে স্পন্সর সংগ্রহ কষ্টকর হবে। এ কারণেই আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি অন্তত এক ডজন টেলিভিশন চ্যানেলকে আমরা পনেরো অগাষ্ট কেন্দ্রীক নাটক উপহার দেবো।

তিনি বলেন, এরই মাঝে দেশের প্রথম সারির নির্মাতাদের সাথে আমরা কথা বলছি এবং আশা করছি আগামী মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেই গল্প সংক্ষেপ পাবো।

তাজুল ইসলাম বলেন, ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট শুধুমাত্র একটা প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান নয়। জাতি এবং সমাজের কাছে আমাদের দায়বদ্ধতা আছে। এ কারণেই প্রতি বছর আমরা জাতীয় শোক দিবসে নানা ধরনের কন্টেন্ট নির্মাণ অব্যাহত রাখবো।

ক্রাউনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে নির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল বলেন, ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট এরইমধ্যে ভালো কিছু কাজের উদ্যোগ নিয়েছে। বেশ কিছু এরইমধ্যে শেষও করেছে। আগামী ১৫ আগষ্ট সামনে রেখে যে উদ্যোগ নিয়েছে অসম্ভব ভালো একটি পরিকল্পনা। বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যার জন্য আজকের বাংলাদেশ তাকে সম্মান জানিয়ে অত্যন্ত ভালো একটি উদ্যোগ নিয়েছে তারা। ক্রাউনের মতো সবারই উচিৎ এ রকম সুন্দর উদ্যোগ নেওয়া। এ দিবসটি আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এ রকম গুরুত্বপূর্ণ পরিকল্পনা সকল প্রযোজক ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের করা উচিৎ। এখানে ক্রাউন কোন ব্যবসায়িক চিন্তা করেনি। দেশ প্রেমের জায়গা থেকে কাজটি করছে। দেশ প্রেম না থাকলে এ রকম কাজ কখনই সম্ভব নয়। আমাদের দেশে ভালোবাসা দিবসের নাটকের স্পন্সর হয় কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের গল্পের নাটকের স্পন্সর হয় না। এটি সত্যিই দুঃখজনক। ১৫ আগষ্টকে সামনে রেখে যে কর্মপরিকল্পনা করেছে অনেক বিশাল একটি ব্যাপার। আমার বিশ্বাস ক্রাউনের কাজটি প্রশংশিত হবে। শোয়েব ভাইকে ধন্যবাদ এমন সুন্দর একটি উদ্যোগ নেওয়ার জন্য।

তিনি আরো বলেন, আমি তাদের সাথে কাজ করছি। আমরা সবাই চাই শোয়েব চৌধুরী ভাইয়ের মতো শিক্ষিত প্রযোজক মার্কেটে আসুক ইন্ড্রাস্ট্রির কথা ভাবুক। তিনি ব্যবসায়িক চিন্তা কম করে ইন্ড্রাষ্ট্রির কথা বেশি গুরুত্ব দিয়েছেন। ক্রাউনের মতো অনন্য প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যদি এ রকম ভাবে তাহলে আমাদের ক্রান্তিকাল থাকবে না। আমাদের ইন্ড্রাষ্ট্রি অনেক দূর এগিয়ে যাবে। সকল ভালো নির্মাতাদের উচিৎ ক্রাউনের সাথে কাজ করা।

নির্মাতা আবু হায়াত মাহমুদ বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে জনজীবন থমকে গেছে। দেশের এই দুর্দিনে ঝুঁকি নিয়ে আর্থিক ক্ষতির কথা চিন্তা করে কেউ সে ভাবে কাজ করছে না। সেখানে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট ইন্ড্রাষ্ট্রির জন্য একটা উদাহরণ হতে যাচ্ছে। সবাই যেখানে কাজ বন্ধ রেখেছে সেখানে তারা লোকশানের কথা ভেবেও পুরোদমে কাজ করছেন।

তিনি আরো বলেন, আগামী ১৫ ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস। শোক দিবস সামনে রেখে ক্রাউন নতুন একটা উদ্যোগ নিয়েছেন চ্যানেলের জন্য উপহার হিসেবে নাটক প্রযোজনা করবেন। সত্যিই তারা মহানুভাবতার স্বাক্ষর রাখতে যাচ্ছেন। দেশ প্রেম না থাকলে কখনই এটা সম্ভব নয়। তাদের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানাই।

উল্লেখ্য, ক্রাউন এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত বিশেষ দৈর্ঘ্যের চলচ্চিত্র জনক ও সন্তান মুজিব বর্ষের শুরুতেই প্রচারিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা সঙ্কটের কারণে সেটা স্থগিত রাখা হয়। এ বছর জাতীয় শোক দিবসে এটি প্রচারিত হবে।

 56 total views,  4 views today

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




© All rights reserved © 2014 barisalbani