২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
বরিশালে পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩ রাঙাবালীতে ইয়াবাসহ আটক-১ ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে আমতলীতে গরমে মাথা ঘুরে পড়ে গিয়ে নারীর মৃত্যু বরিশালে পুনর্বাসন ছাড়া হকার উচ্ছেদ বন্ধের দাবি রাজাপুরে শিক্ষার্থীদের অনুদানের বরাদ্দ ৫ হাজার, কিন্তু পেয়েছে ৩ হাজার! বরিশালে দরিদ্র মানুষের সংখ্যা বেশি থাকায় বেড়েছে শিশু শ্রমের হার নারী ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে প্রবাসীর স্ত্রীকে মারধর করে মাথা ফাটিয়ে দেয়ার অভিযোগ সিরাজগঞ্জে উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতিক বরাদ্দ প্রদান ৫ হাজার টাকা বরাদ্দ শিক্ষার্থীরা পেল ৩ হাজার রাজাপুরের সোনারগাঁও স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের বি...

জেনে রাখা ভালো- বীমা পলিসি তামাদি হয় কেন ?

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

বরিশাল বাণী: যে কোনো প্রতিস্ঠানের সুনাম দুর্নাম নির্ভর করে উক্ত প্রতিস্ঠানের দক্ষ অদক্ষ কর্মী বাহিনীর উপর। কারন—– কোনো প্রতিস্ঠানের কর্তৃপক্ষ চান না তার প্রতিস্ঠানকে মানুষ খারাপ বলুক। তথাপি কর্মীদের কর্মফল তাদেরকে বা প্রতিস্ঠানকে ভোগ করতে হয়।সেমতে বীমা প্রতিস্ঠানেরও রয়েছে অসংখ্য ভাল দিক।কিন্তু এই ভাল দিকগুলো ম্লান হয়ে যায় কতিপয় অসাধু কর্মকর্তার দুস্কর্মের কারনে।তন্মদ্যে অন্যতম হলো বিক্রিত পলিসি তামাদি হওয়া।কারন পলিসি তামাদির কারনে গ্রাহক তার প্রাপ্য সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন অার এর কুফল ছড়িয়ে পরে সর্বস্তরে।পলিসি তামাদি হওয়ার অনেক কারন রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কয়েকটি হলো————

০১. নিয়মিত পলিসির প্রিমিয়াম (কিস্তি) জমা না দেওয়া।

০২. না বুঝে শুধুমাত্র সম্পর্কের খাতিরে অাবেগতাড়িত হয়ে পলিসি করা।

০৩. ঝুঁকিপূর্ণ বাহকের মাধ্যমে পলিসির প্রিমিয়াম (কিস্তি) জমা করা।

০৪. গ্রাহকের সক্ষমতার চাইতে কম বা বেশি অংকের পলিসি করা।

০৫. গ্রাহক কে অতিরিক্ত লাভ বুঝানো, একইসাথে কর্মীর সুযোগ সুবিধা বুঝানো।

০৬. শুধুমাত্র লাভের জন্য বীমা করানো, ঝুঁকির বিষয়টি বিবেচনায় না রাখা।

০৭. বীমা কোম্পানীর সার্বিক বিষয় সম্পর্কে গ্রাহককে সঠিক তথ্য না দেয়া।

০৮. গ্রাহকের সক্ষমতা না থাকা সত্বেয় একাধিক পলিসি করানো।

০৯. প্রথম প্রিমিয়াম (কিস্তি) জমার পরে গ্রাহকের সাথে সংযোগ না রাখা।

১০. গ্রাহক থেকে নবায়ন প্রিমিয়াম এনে প্রথম প্রিমিয়াম হিসাবে জমা করা, ইত্যাদি।

অতএব, পলিসি বিক্রিতে ও এর তত্বাবধানে কর্মকর্তাগন যত সচেতন হবেন পলিসির তামাদি সংখ্যা ততো কমে অাসবে।পলিসির তামাদি সংখ্যা যতো কমে অাসবে বীমা শিল্পের ভাবমূর্তি ততো উজ্জল হবে।বীমা শিল্পের ভাবমূর্তি যতো উজ্জল হবে বীমা কর্মকর্তাদের মর্যাদা ততো বাড়বে।অাশাকরি সংশ্লিষ্ট সকলেই সচেতনতার সাথে সুচারুভাবে সম্মানের সহিত কার্যক্রম পরিচালনা করবো, ইনশয়াল্লাহ।

লেখক: মোহাম্মদ এমরান

ডিভিশনাল ইনচার্জ

ফারইস্ট ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স লিঃ

বরিশাল ডিভিশন।

সর্বশেষ