২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঝালকাঠিতে করোনায় একজনের মৃত্যু, ১৫৬ আক্রান্ত

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

মাসুম খান, ঝালকাঠি :: ঝালকাঠিতে গত ২৪ ঘণ্টায় বুধবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে,১৫৬জন আক্রান্ত হয়েছে। ঝালকাঠি নলছিটি উপজেলার নাচন মহল এলাকার বেলায়েত হোসেন(৭০) বরিশাল শের এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু বরণ করেছেন।

আক্রান্ত ১৫৬ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৯২জন, নলছিটি উপজেলায় ২২জন, রাজাপুর উপজেলায় ৩৪ জন ও কাঠালিয়া উপজেলায় ৭জন রয়েছে। ঝালকাঠি জেলায় এপর্যন্ত স্বাস্থ্য বিভাগ ৮২২৯ জনের নমুন পরীক্ষা করেছে। এর মধ্যে ২৩২০ পজেটিভ ও ৫০৯৩জনের নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে। ১৩৯০জন সুস্থ্য হয়েছে ও ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। বর্তমানে ৮১৮জন হোম ও ২৫জন হাসপাতাল আইসোলিশনে রেয়েছে বলে জানান সিভিল সার্জন ডাঃ রতন কুমার ঢালী।

ঝালকাঠির অবস্থাও অবনতির চরম শিখরে। পরিস্থিতিও অবনতীশীল গত ২৪ ঘন্টায় ঝালকাঠিতে ২৫১ জনের নমুনা পরিক্ষায় ১৫৬ জনের দেহে করোনা সংক্রমন সনাক্ত হয়েছে। সনাক্তের হার প্রায় প্রায় ৬৫%।দক্ষিণাঞ্চলের ছোট এ জেলাটিতে সংক্রমনের হার এখনো সর্বাধীক, ২৩.৬৩%। মৃত্যুহার তৃতীয় সর্বোচ্চ ১.৭২%।

গত কয়েকদিন ধরে করোনা সংক্রমনের হার আশংকাজনন ভাবে বেড়ে যাওয়ায় মার্কেটগুলোর পাশাপাশি সবধরণের খাবারের দোকানও বন্ধ করে দিয়েছে জেলা প্রশাসন। জরুরী প্রয়োজনে জেলা শহরের রিকশা ছাড়া কোন প্রকার যানবাহন চলতে দিচ্ছে না পুলিশ।

ঝালকাঠি সদর হাসাপাতালে করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় তীব্র অক্সিজেন সংকট দেখা দিয়েছে। বাড়তি রোগীর চাপে শ্বাসকষ্ট নিয়ে আসা করোনা রোগীদের এখন বরিলাশে পাঠাতে হচ্ছে।

জেলা ও উপজেলাগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালত লকডাউন বাস্তবায়নে দিনরাত অভিযান পরিচালনা করছে। সেনা, র‌্যাব, পুলিশ ও আনছার বাহিনী শহরের মোড়ে মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি করছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে বাঁশ বেঁধে যান ও মানুষের চলাচল আটকে দেয়া হয়েছে। লকডাউনের নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রামামাণ আদালত মামলা ও জরিমনা করছেন।

সর্বশেষ