১৫ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ঝালকাঠিতে বিষখালী-সুগন্ধা নদীতে তীব্র ভাঙন

বরিশাল বাণী  অনলাইন ডেস্ক :

ঝালকাঠির সুগন্ধা-বিষখালী নদীতে আকস্মিক ভাঙন শুরু হয়েছে। ভেঙে পড়ছে নদী-তীরবর্তী এলাকা। হুমকিতে নদীসংলগ্ন বসতভিটা ও ফসলি জমি। গত মঙ্গলবার ভাঙনের কবলে পড়ে ধসে পড়েছে পশ্চিম দেউরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন শেল্টারের একাংশ। এ ঘটনায় ভবনের নিচে চাপা পড়ে নেয়ামত উল্লাহ (১৬) নামে এক কিশোর নিখোঁজ রয়েছে। একই সময় ঐ স্কুলের পার্শ্ববর্তী একটি পাকা মসজিদসহ তীরবর্তী এলাকাও বিলীন হয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন। পশ্চিম দেউরী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক মো. ফারুক খান জানান, সকাল ১০টার দিকে সাইক্লোন শেল্টার কাম বিদ্যালয় ভবনের পশ্চিম অংশের মাটি কিছুটা দেবে যায়। দুপুর সাড়ে ১২টায় হঠাৎ বিকট শব্দে ভবনের অর্ধেকের বেশি অংশ ভেঙে নদীর পানিতে তলিয়ে যায়। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী কৃষক খাইরুল জানান, পাকা ভবনটি যখন দেবে যাচ্ছিল তখন আমার আত্মীয় নেয়ামতুল্লাহ মোবাইল দিয়ে দৃশ্যটি ভিডিও করছিল। হঠাৎ করে বিকট শব্দে ভবনের বড় অংশ ভেঙে পড়ে। আমরা দৌড়ে সরে আসতে পাড়লেও নেয়ামতউল্লাহ ভবনের নিচে চাপা পড়ে তলিয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের অফিসার আবুল হোসেন বলেন, আমরা একটি ইউনিট নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে দেখি সাইক্লোন শেল্টারের পশ্চিম অংশ সম্পূর্ণ পানির নিচে। যা আমাদের পক্ষে উদ্ধার করা সম্ভব নয়। তাই বিষয়টি তাত্ক্ষণিকভাবে বরিশাল নৌফায়ার স্টেশনকে অবগত করে ঝালকাঠি পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রাকিব হোসেন বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। সাইক্লোন শেল্টারের ছাদের অংশ নদীভাঙনে ধসে পড়েছে। ভবনের বাকি অংশ পুরোটাই কাত হয়ে আছে। যে কোনো সময় এটিও ধসে পড়তে পারে। এখানে ভাঙন রোধে প্রায় ৬ হাজার জিও ব্যাগ ডাম্পিংয়ের কাজ শুরু করেছি। পাশাপাশি এ কাজ করার জন্য অনুমোদন চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছি। অনুমোদন পাবার সঙ্গে সঙ্গে ডাম্পিংয়ের কাজ শুরু করা হবে।’

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ