২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঝালকাঠিতে মধ্যরাতে সন্ত্রাসী হামলায় আহত-৫, থানায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ঝালকাঠি শহরের পুরাতন কলাবাগান এলাকায় মধ্যরাতে বসতঘর দখলের পায়তারার বাধা দেয়ায় দুই দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এতে অন্তত ৫জন আহত হয়েছে। গত ২৭্এপ্রিল রাত ৩টায় ও ২৮এপ্রিল সকাল ১০টায় এ সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষের এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পুতুল বেগম বাদী হয়ে ঝালকাঠি সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।
মামলায় উল্লেখ করা হয়, মো. রাজ্জাক হোসেন ওরফে আরিফ খলিফা, আসাদুজ্জামান ওরফে রাজিব খলিফা, আমিন খলিফা, রাজু হাওলাদার, শামসু গাজীসহ ২০/২৫ জনের একটি দল ২৭এপ্রিল রাত ৩টায় পুরাতন কলাবাগান এলাকায় একটি ঘর তুলে অবৈধভাবে দখলের পায়তারা চালায়। এসময় অবৈধ দখলকারীরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত ছিলো। জমির মালিক কয়েকজনকে নিয়ে তাতে বাধা দিলে হামলা ও মারধর শুরু করে। এতে মো. সাইফুল ইসলাম, মো. জাহিদ হোসেন, মো. তাওহীদ হাওলাদারসহ ৫জন আহত হয়। সাইফুল, জাহিদ ও তাওহীদকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করায় তারা ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা চিকিৎসা নিয়েছে। ২৮এপ্রিল সকালে এনিয়ে আবারো সংঘর্ষে লিপ্ত হয় অবৈধ দখলদার ও হামলাকারীরা।
বাদী জানান, ঝালকাঠি পৌরসভার লঞ্চঘাট ভেরিবাধ রোডস্থ পুরাতন কলাবাগান সাকিনে ক্রয়সূত্রে জমির মালিক সাইফুল ইসলাম, মো. কাওছার হাওলাদার, ফেরদৌস, খায়রুল, শাহজাহান হাওলাদার, অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান মুবিন। ওই জমিতে তারা ঘর তুলে দীর্ঘদিন যাবত ভোগদখলে আছেন। স্থানীয় ভ‚মিদস্যু ও বহু অপকর্মের হোতা আরিফ খলিফা বেআইনী ভাবে আমাদের জমি জবর দখলের চেষ্টা চালায়। এতে আমরা বাধা দিলে আমাদেরকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে। থানায় মামলা দিলে এখন পলাতক থেকে আমাদের বিভিন্নভাবে মামলা তুলে নিতে হুমকি দেয়। মামলা তুলে না নিলে পরবর্তিতে বড় ধরনের খেসারত দিতে হবে বলেও হুমকি অব্যাহত রাখে। আমরা বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আসামীরা পলাতক থাকায় তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
ঝালকাঠি সদর থানার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) মো. খলিলুর রহমান জানান, মামলার পর থেকে আসামীরা আত্মগোপনে রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ