৩রা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
নৌকা মুক্তির সোপান, দেশের মানুষকে মুক্তি দিয়েছে নৌকা নির্ধারিত সময়ের পাঁচ ঘন্টা আগেই শুরু হলো রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র নবনির্বাচিত কেন্দ্রীয় পরিষদকে বরিশাল নেতৃবৃন্দের শুভেচ্ছা শেখ হাসিনা সরকার রাষ্ট্র ক্ষমতায় না এলে এদেশে কোন সম্প্রীতি থাকবে না আবারও এদেশে পাকিস্তানী পতাকা উ... জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব হলেন বরিশালের মামুন-অর-রশিদ বরিশালে কর্মীদের জুতাপেটা করে শাসন করলেন ছাত্রলীগ নেতা জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র কেন্দ্রীয় কমিটিতে পুনরায় পদ পেলেন বরিশালের দুই সাংবাদিক "টাইমস ইউনিভার্সিটি বাংলাদেশ" ক্যাম্পাস জীবনের শেষ প্রান্তে জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন সুনিল বরন হালদার এর “পাখি”

ঝালকাঠিতে সৎপুত্র ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মায়ের সংবাদ সম্মেলন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি :: ঝালকাঠিতে সৎপুত্র ও তার স্ত্রী’র দেয়া মিথ্যা মামলা-হয়রানি এবং অপপ্রচার থেকে রক্ষা পেতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মা রোকেয়া বেগম। সোমবার (৮ মার্চ) বেলা ১১ টায় ঝালকাঠি টেলিভিশন সাংবাদিক সমিতি কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জেলার রাজাপুরের আদার্শপাড়া এলাকার বাসিন্দা রোকেয়া বেগম বলেন, আমার স্বামীর মৃত্যুর পর সৎপুত্র মিজানুর রহমান মাসুম ও তার মামলাবাজ স্ত্রী নাসিমা বেগম কর্তৃক সহায়-সম্পত্তি গ্রাস করতে একের পর এক মিথ্যা মামলায় হয়রানি-নির্যাতনের শিকার হচ্ছি।

আমি ১৯৮৫ সালে সাবকবলা দলিল (নং-২৭৫৮) মুলে ২৭ শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করে সেখানে টিনসেড বিল্ডিং নির্মান করে স্বামী-সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছি। পরবর্তীতে আমার স্বামীও একই মৌজায় ও খতিয়ানে পৃথক সাবকবলা (দলিলনং-২৮১৮) মুলে ৩০শতাংশ সম্পত্তি ক্রয় করে। কিন্তু ১৯৯৭ সালে আমার স্বামী রফিজ উদ্দিন তালুকদার আমার দুই ভাইয়ের কাছে সাড়ে ৯ শতাংশ জমি সাবকবলা দলিল (নং-১০৯২) মুলে বিক্রি করে। অবশিষ্ট সাড়ে ২০ শতাংশ সম্পত্তি আমার স্বামীর মালিকানাধীন থাকে। আমার স্বামীর অবর্তমানে উক্ত সাড়ে ২০ শতাংশ সম্পত্তি আমার সৎ পুত্র সহ আমি ও আমার ৪ পুত্র-১কন্যার অংশিদারিত্ব থাকে। কিন্তু আমার সৎ পুত্র মাসুম ও তার স্ত্রী নাসিমা বেগম আমার ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে থাকা বসত ঘর দখলের চেষ্টা চালায়। তারা অন্যায় ভাবে আমার সম্পত্তি গ্রাস করতে আমাকে, আমার দুই শিক্ষক ভাই, ৪পুত্রসহ সকলের বিরুদ্ধে চাদাবাজী, সহিংসতাসহ গুরুত্বর ধারায় একাধিক ফৌজধারী, ৭ধারা মামলা ও সিভিল মামলা দায়ের করে একের পর এক হয়রানি-নির্যাতন চালাতে শুরু করে।

আমি আমার বয়স্ক দুই ভাই ও ছেলেমেয়ের জীবনের নিরাপত্তহীনতায় প্রতিমূহূর্ত আতংকিত দিন কাটাচ্ছি। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে আমি প্রসাশন সহ সর্বমহলের সহযোগিতা কামনা করছি।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ