৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

তালতলীতে খালাকে বিয়ে করতে না পেরে ভাগ্নের আত্মহত্যা

হারুন অর রশিদ,আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলীতে মামাকে কুপিয়ে চাচার বাড়ি লুকাতে এসে রেইনট্রি গাছে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে মোঃ মাহফুজ (১৮) নামে এক কিশোর।

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (৩১ অক্টোবর) গভীর রাতে তালতলী উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের গাবতলী গ্রামে। মাহফুজ বরগুনা জেলার ৬নং বুড়িরচর ইউনিয়নের বড় লবণগোলা এলাকার নিজাম হাওলাদারের পুত্র।

বুড়িরচর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সদস্য ফারুক হোসেন জানিয়েছেন, মামির বোনকে বিয়ে করতে না পেরে গত ২৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় মাহফুজ তার আপন মামা ফজলু প্যাদাকে কুপিয়ে আহত করেছে। এরপর আত্মগোপনে থাকার জন্য গত ৪-৫ দিন পূর্বে তার বাবার মামাতো ভাই ছোটবগী ইউনিয়নের পশ্চিম গাবতলী এলাকার বাদশা হাওলাদারের বাড়িতে যায়। বিয়ে করতে না পারার লজ্জা ও মামাকে কোপানোর মামলায় ফেঁসে যাওয়ার চিন্তায় তার বাবার আরেক মামাতো ভাই মো. কাওসার হাওলাদারের বসতঘরের দক্ষিণ পাশে রেইনট্রি গাছের সঙ্গে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন মাহফুজ।

বাদশা হাওলাদার তাকে গাছের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে তালতলী থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ থানায় নিয়ে আসেন।

এ ব্যাপারে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. কামরুজ্জামান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। সোমবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ