২৩শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

তালতলীতে দুই সাংবাদিকের উপর এলজিইডি’র কর্মচারীর হামলা

হারুন অর রশিদ, আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধিঃ
বরগুনার তালতলীতে দৈনিক নয়াদিগন্ত’র উপজেলা প্রতিনিধি মাওঃ ইউছুফ আলী ও দৈনিক অধিকার পত্রিকার প্রতিনিধি শাহাদাত হোসেনের উপর পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা করেছে উপজেলা প্রকৌশলী অফিসের অফিস সহায়ক শাকিল আহমেদ (২৪)। ১১ মার্চ দুপুর ১টায় তালতলী উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় তালতলী থানায় একটি সাধরণ ডায়েরী (নং-৪২৯ তারিখ-১১ মার্চ ২০২১) করা হয়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার কড়ইবাড়িয়া ইউনিয়নের ঝাড়াখালী গ্রামে একটি কালভার্ট ও সড়ক নির্মানে অনিয়মের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তথ্য সংগ্রহে গত ৯ মার্চ কয়েকজন সাংবাদিক তালতলী এলজিইডির অফিসে গেলে উপজেলা প্রকৌশলী আহাম্মদ আলী সাংবাদিকদের সাথে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখায় এবং তার সহকারীকে কালভার্টের নির্মাণ কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে বলেন ওখানে কোন কালভার্ট হবেনা। তিনি বলেন, এই মূহুর্তে অফিসে আমার সহকারী নাই আপনারা বৃহস্পতিবার আসেন। বৃহস্পতিবার অফিসে গিয়ে অফিস বন্ধ পাওয়া যায়। এসময় পিয়ন শাকিল সাংবাদিকদের দেখেই অহেতুক কথা বলতে থাকে। অফিসের এক কর্মচারী সাংবাদিকদের চা খাওয়ার কথা বলে সাংবাদিক শাহাদাৎকে পাশের একটি কক্ষে নিয়ে যায়। অফিসের ওই পিয়ন শাকিল তাৎক্ষনিক কক্ষে ঢুকে শাহাদাৎকে কিলঘুষি, লাথি মেরে মোবাইল ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। তার ডাক চিৎকারে দৈনিক নয়া দিগন্তের প্রতিনিধি ইউছুফ আলী এগিয়ে আসলে তাকেও কিলঘুষি দিয়ে কক্ষের মধ্যে তালা দিয়ে তাদেরকে অটকে রাখার চেষ্টা করে। অফিসের মধ্যে হট্টগোল শুনতে পেয়ে লোকজন জড়ো হলে শাকিল বেড়িয়ে গিয়ে বলে সাংবাদিকরা কি করতে পারে আমার জানা আছে। পরে ওই দুইসাংবাদিক বেড়িয়ে এসে তালতলী থানা অফিসার ইনচার্জকে বিষয়টি অবহিত করে এবং একটি সাধারণ ডায়েরী করে। এলজিইডির প্রকৌশলী আহাম্মদ আলীর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
এ ব্যাপারে তালতলী থানা অফিসার ইনচার্জ কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • হারুন অর রশিদ
    আমতলী, বরগুনা
    ০১৭১৭২৭১১৫৯
Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email