২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

তালতলীতে বনের ২৫০ পিস লাঠি সহ গ্রেফতার ২

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

কাওসার হামিদ, তালতলী(বরগুনা)প্রতিনিধি

বরগুনার তালতলীতে সংরক্ষিত টেংরাগিরি বন থেকে ২৫০ পিস লাঠি কেটে নিয়ে আসার সময় অটো-রিক্সার ড্রাইভারসহ আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় বন বিভাগ তিনজনকে আসামী করে একটি মামলা করেছেন। রাজনৈতিক অস্থিরতার চেষ্টার আশঙ্কা করছেন সচেতন মহল।রবিবার(১৪ এপ্রিল) বেলা ১ টার দিকে তালতলী থানায় মামলা করেন বন বিভাগ ও দুই আসামীকে গ্রেফতার করেন। এর আগে গতকাল শনিবার(১৩ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে তালতলী থানার সামনের চেকপোস্ট থেকে আটোরিক্্রার ডাইভারসহ ২৫০ পিস লাঠি আটক করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, অটো রিক্সার ড্রাইভার জাকিক (৫০) ও মো. রিয়াজ।জানা যায়,উপজেলার নিদ্রার চর এলাকার সংরক্ষিত টেংরাগিরি বন থেকে ২৫০ পিস লাঠি কেটে নিয়ে এসে রাজনৈতিক অস্থিরতার প্রভাব দেখানো হবে এমন গোপন সংবাদ পায় পুলিশ। থানার সামনে চেক পোস্ট বসিয়ে বিভিন্ন গাড়ি তল্লাসি শুরু করেন। রাত ১০ টার দিকে একটি অটো রিক্সায় করে ২৫০ পিস বনের বিভিন্ন গাছ কেটে মারামারি করার জন্য আনুমানিক দুই হাত প্রতিটি লাঠি কেটে সাইজ করে প্লাস্টিক বস্তায় নিয়ে আসতে ছিলো। পরে পুলিশের একটি টিম ঐ অটো রিক্সাকে থামিয়ে চেক করে ও ড্রাইভার জাকিরকেসহ ২৫০ পিস লাঠি আটক করা হয়। ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন রিয়াজ ও কামাল মোল্লা নামের দুই ব্যক্তি তাকে এই লাঠি নিয়ে আসতে বলেন তালতলীতে। এ ঘটনায় অটো রিক্সার ড্রাইভার জাকির,রিয়াজ ও কামাল মোল্লাকে আসামী করে একটি মামলা করেন বন বিভাগের তালতলী রেঞ্জ কর্মকর্তা মতিয়ার রহমান। এতে অটো রিক্সার ড্রাইভার জাকির ও লাঠি উঠি দেওয় রিয়াজকে আটক করেছে পুলিশ। আসামীদের আদালতের মাধমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।সচেতন মহল বলছেন, তালতলীর রাজনৈতিক অস্থিরতার সৃষ্টির জন্য সংরক্ষিত বন থেকে বিভিন্ন গাছের সাইজ করা লাঠি কেটে নিয়ে আসা হচ্ছে। এটা প্রশাসনের গুরুত্ব সহকারে দেখা উচিত বলে মনে করেন তারা। এমন কি আজকের পহেলা বৈশাখের মঙ্গল শোভা যাত্রায় এই লাঠি ব্যবহার করে হামলার ঘটনাও ঘটতে পারতো। শুধুমাত্র মামলা ও এই ছোটখাটো আসামীদের বলির পাঠা করলেই হবে না। এই লাঠি কে নিয়ে আসতে বলেছেন এবং কারা রাজনৈতিক অস্থিরতা সৃষ্টি করতে চাইছেন তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হোক।

অভিযুক্ত অটো রিক্সার ড্রাইভার জাকির হোসেন বলেন, কামাল মোল্লা ও রিয়াজ তাদের এই লাঠি নিয়ে আসতে বলেছেন। এর বেশি কিছু তিনি জানেন না।এবিষয় বন বিভাগের তালতলী রেঞ্জ কর্মকর্তা বলেন, বনে গাছ কেঠে লাঠি তৈরি করে নিয়ে আসার সময় পুলিশ আটক করেছেন। পরে আমাদের খবর দিলে আমরা বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করি। মামলার পরে তদন্তে সঠিক জিনিসটা বের হয়ে আসবে।

তালতলী থানার ওসি (তদন্ত) রনজিৎ কুমার বলেন, বনের গাছ কেটে লাঠি তৈরি করা ২৫০ পিস উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় বন বিভাগ বাদি হয়ে একটি মামলা করেছেন। আমরা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

সর্বশেষ