৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
রাঙ্গাবালীতে পুত্রবধু পেটালেন বৃদ্ধ শশুরকে বানারীপাড়ায় ডিবি পুলিশের অভিযানে ইয়াবাসহ ২মাদক কারবারি আটক বিয়ানীবাজারে নিখোঁজ সিয়ামের সন্ধান চেয়ে থানায় জিডি টেন্ডার ছাড়া মালামাল বিক্রির অভিযোগ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষকের উপর ঝালকাঠীতে ডাটা এন্ট্রি কার্যক্রমের অগ্রগতি বিষয়ক পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত বানারীপাড়ায় ১০ম শ্রেণী'র ছাত্র মনিরের আত্মহত্যা, স্কুলের অভিযোগ এনে মানববন্ধন প্রেমিককে নিয়ে নিজের ছেলেকে গাড়িচাপায় হত্যা করে নদীতে ফেলল মা! বানারীপাড়ায় স্কুল ছাত্র মনিরের আত্মহত্যার ঘটনায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ৩ মাদক ব্যবসায়ী আটক চাকরি দেওয়ার কথা বলে ধর্ষণ

দলীয় সিদদ্ধান্তে কখনো পিছু হটিনি…যুবলীগ নেতা দুলাল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
রাজনৈতিক অঙ্গনে ছাত্র জীবনহতে নিরলস ভাবে কাজ করে চলেছেন দুলাল তালুকদার। দলীয় পোস্ট পজিশনে যে অবস্থানেই ছিলেন তিনি কাজ করেছেন অগ্রনী ভূমিকায়।আন্দোলন সংগ্রামে কখনোই পিছনের কাতারে ছিলেননা তিনি।এজন্য তাকে বারবার হামলা মামলার শিকার হতে হয়েছে।হাজতবাসও করেছেন বহুবার।বানারিপাড় উপজেলার ৫নং সলিয়া বাকপুর ইউনিয়নের বাকপুর গ্রামের মো: আক্কেল আলী তালুকদারের পুত্র মোঃশফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল। স্কুল জীবন হতে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সক্রিয় দুলাল। ১৯৯৩-৯৪ সালে সলিয়া বাকপুর ফজলুল হক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯৮-৯৯ সনে সরকারি ফজলুল হক কলেজ শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্ব পালন করে সে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক (২০০০-২০০১) জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগ। বর্তমানে বানারীপাড়া উপজেলা যুবলীগ নেতা হিসেবে সক্রিয় ভুমিকা পালন করছেন। ২০১৮ সনে সংসদ নির্বাচনের ৬দিন পূর্বে বানারীপাড়ায় বিএনপি সমর্থীত প্রার্থী এস সরফুদ্দিন আহম্মেদ সান্টু’র নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী বাহিনীর হামলায় দুলালকে কুপিয়ে আহত করা হয়। ইলেকট্রনিক্স মিডিয়াসহ অনেকেই বিএনপি’র সন্ত্রাসী হামলায় যুবলীগ নেতা দুলাল’র মৃত্যু হয়েছে এমন সংবাদ প্রচার করে। ২০১৪ সনে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট চলাকালীন সময় ভোট কেন্দ্রে বিএনপি’র সন্ত্রাসীদের হামলার শিকার হয় দুলাল। এসময় তার শরীরে ৯টি কোপের আঘাত বহন করতে হচ্ছে এখনো। ২০০৩-০৪ সনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় অফিস হতে বাসা ফেরার পথে পুলিশের নির্যাতনের শিকার ও হাজত বাস করতে হয় দুলালকে। ২০০১ সনে বিএনপি’র সাবেক সংসদ শহিদুল হক জামাল বাহিনীর নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে বহুবার। এসময় হয়রানী মূলক হাজতবাস করেছে দুলাল।
এছাড়া দলীয় সকল কার্যক্রমে সক্রিয় ভুমিকা পালন করেছে এ নেতা। ওয়ান এলেভেনে কেন্দ্র ঘোষিত সকল আন্দোলন সংগ্রামে নেতৃত্ব দিয়েছে শফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল।
করোনা কালীন দূর্যোগে এলাকাবাসীর পাশে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন শফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল। এছাড়া ইউনিয়নের রাস্তাঘাট নিজস্ব অর্থায়নে সংস্কার করেছে দুলাল। ইউনিয়নের দুস্থ ও অসহায় মানুষের বন্ধু হিসেবে সকলের পরিচিত যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল। ইউনিয়নের ভোটাররা জানান,‘ দুলাল বয়সে তরুন হলেও সমাজ সেবায় ব্যাপক ভুমিকা রেখেছে। এবারের নির্বাচনে তাকে চেয়ারম্যান হিসেবে আমরা দেখতে চাই।’দলীয় তৃনমূল নেতাকর্মীরা বলেন দুলাল একজন ত্যাগীনেতা।এবার ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে দল তাকে মূল্যায়ন করবে।
শফিকুল ইসলাম তালুকদার দুলাল বলেন,‘ দলীয় সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে কখনো পিছপা হইনি যা তৃনমূল হতে কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা জানেন।আমি নৌকা প্রতীক পেলে এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন করার পাশাপাশি মাদক ও নিরক্ষর মুক্ত পরিবেশ বান্ধব ইউনিয়ন গড়ে তুলব। “

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email