১৩ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

দুমকিতে ‘ সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক এন্ড জেনারেল হাসপাতাল ’ এর উদ্বোধন

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

কামরুল হাসান, জেলা প্রতিনিধি :
‘যতনে রাখিবো, মায়ায় বাঁধিবো- রাখিবো আপন করে’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের ঠিক বিপরীত পাশে দরিদ্র ও স্বাস্থ্যসেবা বঞ্চিত মা – শিশুদের জন্য ‘ সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক এন্ড জেনারেল হাসপাতাল ’ নামে একটি বেসরকারি চিকিৎসা কেন্দ্র চালু হয়েছে। সেবাকেন্দ্রটির উদ্বোধন উপলক্ষে আজ সোমবার সকালে হাসপাতাল ভবনের ছাদে আলোচনাসভা, দোয়া ও মিলাদের আয়োজন করা হয়।

বাউফল উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার ২০ জন উদ্যোগক্তা চিকিৎসাকেন্দ্রটির মালিক। তাঁরা গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে আবদুল আজিজ মিয়ার তিন তলা ভবনে এর কার্যক্রম শুরু করেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দুমকি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ বলেন , ‘ এ উপজেলার বাসিন্দাদের মা ও শিশুস্বাস্থ্যের চিকিৎসায় কষ্ট এবং ভোগান্তির শেষ ছিল না। আমার মনে হয় , সেবাকেন্দ্রটি চালু হওয়ায় মানুষের ভোগান্তি কমবে। দোরগোড়ায় বসে মানুষ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের ভালো চিকিৎসা পাবে। এটা এ উপজেলার জন্য সুসংবাদ। ’

এ সময় পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এএসএম ইকবাল হোসাইন , উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. শাহজাহান আকন সেলিম ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আবুল হোসেন আবুল, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ডেপুটি রেজিষ্ট্রার নাইম কাওছার, দুমকি প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. জাকির হোসেন , বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার দুমকি প্রতিনিধি মো. দেলোয়ার হোসেন, যুগান্তর প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এএসএম ইকবাল হোসাইন বলেন , ‘ তৃণমূল পর্যায়ে গরিব – দুস্থ মানুষের সেবা করার লোক পাওয়া যায় না। সেদিক থেকে চিন্তা করলে ‘ সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতাল’ নামে এ প্রতিষ্ঠানটি অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এ সেবাকেন্দ্রটি সাধারণ মানুষের সেবায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি। ’

স্থানীয় বাসিন্দা মোসা. কবিতা বেগম বলেন , ‘ এ রকম একটা সেবাকেন্দ্র চালু হওয়ায় আমাগো উপকার হইছে। চিকিৎসার জন্য আমরা আগে দূরে যাইতাম। এতে অর্থ খরচ আর কষ্টও হইত। এখানে চিকিৎসা নিলে আমাগো অর্থ খরচ এবং কষ্ট কম হইবে। ’

প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএফএ রিয়াজ বলেন , নারী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও নার্সদের মাধ্যমে অস্ত্রোপচার ও পরীক্ষা – নিরীক্ষাসহ মানসম্পন্ন চিকিৎসা দিতে তাঁরা অঙ্গীকারবদ্ধ। তা ছাড়া গর্ভকালীন জরুরি , সময়োপযোগী চিকিৎসার প্রয়োজনে অন্তঃসত্ত্বা নারীদের তালিকা তৈরি করে সেবাকেন্দ্রের মাধ্যমে তাঁরা ভূমিকা রাখতে চান।

সুরক্ষা ডায়াগনস্টিক এন্ড জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ও সার্জন মো. সোলায়মান এবং প্রসূতি ও গাইনী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক রিফাহ তামান্না প্রমি অভিন্ন বলেন,এখানে মানসম্পন্ন রোগ নির্নয় যন্ত্র ও টেকনোলজিষ্ট রয়েছে। আশা করি সবার সহযোগিতায় গর্ভকালীন জরুরি , সময়োপযোগী চিকিৎসা দিতে পারবেন।

সর্বশেষ