১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
ঘুমের মধ্যে স্ট্রোক করে তরুণ সাংবাদিকের মৃত্যু! বরিশালের বিমান বন্দরে পাওনা টাকা চাওয়ায় যুবককে মারধর।। শেবাচিম হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি হলেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী বৃক্ষ রোপন ও চারা বিতরণীর কর্মসূচী উদ্বোধন করেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক মুলাদীতে ডোবা থেকে ছাগল ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার গৌরনদীতে চাঁদা না পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতার নেতৃত্বে হামলা, ব্যবসায়ী আহত ৩ হাজার নেতাকর্মীদের আপ্যায়ন করালেন প্রতিমন্ত্রী মহিববুর রহমান ঈদযাত্রা নিরাপদ করতে বরিশাল নদী বন্দরে সরব কোস্টগার্ড ভোলায় মাদক প্রবেশ রোধ ও যাত্রীদের নিরাপত্তায় লঞ্চে তল্লাশি মঠবাড়িয়ায় ট্রাক-প্রাইভেটকার সং*ঘর্ষে যুবক নি*হত, আ*হত ১

নামের ভুলে ফাঁসিতে ঝুলে মৃত্যুর প্রহর গুনছে ইমন ! মুক্তি দাবি

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
জাহিদ হাসান, মাদারীপুর জেলা প্রতিনিধি:
মাদারীপুরের রাজৈরে নামের ভুলের কারনে শিশু আদুরী আক্তার(৫) হত্যা মামলায় নির্দোষ ইমন গাছী(৩১) ফাঁসির রায়ে দন্ডিত হয়ে মৃত্যুর প্রহর গুনছে বলে অভিযোগ উঠেছে। দাবী গ্রেফতারকৃত ইমন ও মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত রিমন এক ব্যক্তি নয়।
বৃহষ্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ইমনের ফাঁসির রায় বাতিল ও শর্তবিহীন মুক্তির দাবিতে উপজেলার কামালদি ভারত স্থানে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে এলাকাবাসি ও স্বজনেরা। এসময় প্রায় ৩০মিনিট দুরপাল্লার গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে দীর্ঘ যানযটের সৃষ্টি হয়। পরে রাজৈর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। ইমন উপজেলার কোদালিয়া বাজিতপুর গ্রামের মুহিত গাছীর ছেলে। বর্তমানে তিনি মাদারীপুর কারাগারে বন্দী রয়েছে।
সমাবেশে বক্তারা জানান, ২০১৫ সালের ২০ সেপ্টেম্বর উপজেলার খালিয়া ইউনিয়নের সেনদিয়া গ্রামের টুকু সরদারের মেয়ে আদুরী হত্যা সংগঠিত হয়। এ মামলার রায় ঘোষিত হয় চলতি বছরের ২৯ নভেম্বর। রায়ে রিমন হোসাইন ওরফে ইমন গাছীসহ ৩ জনকে ফাঁসির আদেশ দেন মাদারীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নিতাই চন্দ্র সাহা। কিন্তু ইমন গাছীর নাম রিমন হোসাইন কোথাও নেই। তার জাতীয় পরিচয় পত্র ও পাসপোর্টে নাম ইমন গাছী। তাকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এ মামলার আসামী করা হয়েছে এবং নির্দোষ একটি ছেলেকে ফাঁসির রায় মাথায় নিয়ে মৃত্যুর প্রহর গুনতে হচ্ছে। এসময় রায়টি পুনঃতদন্তের মাধ্যমে পুনঃবিবেচনার জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান তারা।
অন্য দন্ডপ্রাপ্তরা হল- উপজেলার পশ্চিম স্বরমঙ্গল গ্রামের রফিক হাওলাদারের ছেলে রাজীব হাওলাদার ও পিরোজপুর জেলার ভৈরমপুরের রফিকুল ইসলাম মোল্লার ছেলে শফিকুল ইসলাম মোল্লা।

সর্বশেষ