৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
রাজাপুরের তারাবুনিয়ায় যুবককে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ! গলাচিপায় মহান বিজয় দিবস ও শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত ব্যাংক গুজবে কান দেবেন না: প্রধানমন্ত্রী হারিয়ে যাওয়া ১০ টি স্মার্ট ফোন উদ্ধার করলো ভোলা পুলিশ  বরিশাল নগরীতে জেনারেল ডায়াগনস্টিক এবং পাঁচটি ফার্মেসিকে জরিমানা ! গলাচিপায় বকুলবাড়িয়া ইউনিয়ন আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত গলাচিপায় মিথ্যা রাজাকার পুত্র বলে প্রচার করায় কোটি টাকার মানহানী মামলা অসংখ্য মানুষের চোখের জলে বিদায় নিলেন ডায়নামিক জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দার। ২৮তম ট্রাব অ্যাওয়ার্ড ২০২২ মনোনয়ন পেলেন যারা মহিলা নেত্রী উপরে হামলার প্রতিবাদে দশমিনায় মানববন্ধন

প্রকাশ্যে নৌকায় ভোট দিতে হবে ! নয়তো কেন্দ্রে যেতে মানা

বাণী ডেস্ক: নৌকা মার্কায় ভোট না দিলে ভোটকেন্দ্রে আসতে নিষেধ করেছেন যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুল ইসলাম।

রোববার (০৭ নভেম্বর) এমন বক্তব্যের অডিও ক্লিপসহ জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করেছেন আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল বারিক।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের ওই বক্তব্যের অডিও ক্লিপটি জনসাধারণ মোবাইল ফোনে ফোনে ঘুরছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

স্বতন্ত্র প্রার্থীর অভিযোগ করে বলেন, গত ৫ নভেম্বর বিকেলে ঝিকরগাছা সদর ইউনিয়নের লাউজানি স্কুলমাঠে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আমির হোসেনের নির্বাচনী জনসভায় ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুল ইসলাম প্রকাশ্যে ঘোষণা দিয়ে তিনি ওই কথা বলেছেন। তিনি বলেন—‘কেউ নৌকা মার্কায় ভোট না দিলে তাদের ভোটের মাঠে আসার প্রয়োজন নেই। আর যদি কেউ আসে তাহলে প্রকাশ্যে নৌকা মার্কায় ভোট দিতে হবে। বিএনপি-জামায়াতের যেহেতু কোনো প্রার্থী নেই, তাই তাদের কেন্দ্রে আসার দরকার নেই। ’

তার বক্তব্যের অডিও ক্লিপসহ জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল বারিক। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আব্দুল বারিক উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য।

লিখিত অভিযোগে তিনি তাকে ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগও এনেছেন। একই সঙ্গে নিজের এবং কর্মীদের নিরাপত্তাহীনতার কথাও উল্লেখ করেছেন। অভিযোগের অনুলিপি দেওয়া হয়েছে যশোরের পুলিশ সুপার, জেলা নির্বাচন অফিসার, ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানা নির্বাচন কর্মকর্তা, রিটার্নিং অফিসার এবং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে।

যোগাযোগ করা হলে ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ অস্বীকার করেন। ভোটকেন্দ্রে আসতে নিষেধ করার কোনো বক্তব্য তিনি দেননি বলে দাবি করেন। তার বিরুদ্ধে অভিযোগে কী অডিও ক্লিপ দেওয়া হয়েছে, তা তার জানা বলেও জানান।

২০১৯ সালে ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে মনিরুল ইসলাম আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীর বিপক্ষে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হয়েছিলেন।

বাংলানিউজ

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ