২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

পটুয়াখালীতে মোটরসাইকেল চোর চক্রসহ ৪ টি মোটরসাইকেল উদ্ধার

মির্জা আহসান হাবিব ঃ পটুয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পিপিএম মহোদয়ের একান্ত প্রচেষ্টা ও দিকনির্দেশনায় সদর সার্কেল অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো: মুকিত হাসান খাঁন এর নেতৃত্বে পটুয়াখালী সদর থানা ও মহিপুর থানায় অপারেশন পরিচালনা করে অভিনব কায়দায় মোটরসাইকেল হাতিয়ে নেয়া প্রতারক চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাদের হেফাজত হতে ৪ টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। জনৈক মো: হুমায়ুন কবির পিতা: মো: ছিদ্দিক মিয়া, সাং: কাশেমাবাদ, থানা: গৌরনদা, জেলা: বরিশাল এর সাথে বরিশালের বৌদ্ধপাড়ার বাসিন্দা হিসেবে জনৈক রাকিবের সাথে গত ৫/৫/২০২১ তারিখে পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্রে তাদের সাথে সখ্যতা তৈরী হয়। বন্ধুত্বের অভিনয় করে রাকিব হুমায়ুনের মোটরসাইকেল (রেজি: নম্বর: বরিশাল -ল- ১১-৫৫৬৫) নিয়ে হুমায়ুনকে সাথে নিয়ে গত ৯/৫/২০২১ তারিখে পটুয়াখালীত বেড়াতে আসে। রাকিব পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক তার সংঘবদ্ধ মোটরসাইকেল চোর চক্রের অন্যান্য সদস্য রাসেল@ দুলু (২৮) পিতা: হানিফ হাওলাদার সাং: খাজুরা, মহিপুর সহ সকলকে পটুয়াখালীতে আরেক সদস্য হালিম মুন্সীর ছোট চৌরাস্তার ভাড়া বাসায় আসতে বলে। রাসেলসহ চোর চক্রের সদস্যরা পটুয়াখালীতে এসে তার মামা হালিম মুন্সী (৪৫) পিতা: মৃত আজিজ মুন্সী সাং: খাজুরা এর পটুয়াখালীর ছোট চৌরাস্তার বাসায় অবস্থান করে। গত ৯/৫/২০২১ তারিখে সন্ধ্যায় হুমায়ুন তার মোটরসাইকেল ও রাকিবকে নিয়ে পটুয়াখালী পৌঁছলে রাকিব কৌশলে অসাধুভাবে হুমায়ুনের মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায় এবং ছোট চৌরাস্তায় অবস্থিত তার চক্রের সদস্য হালিম মুন্সী, রাসেল @ দুলুর নিকট হস্তান্তর করে। পরে তারা মোটরসাইকেলটি হালিমের পরিচিত জনৈক বাচ্চুর মধ্যস্থতায় হেতালিয়া বাধঘাটের জনৈক আলামিন শিকদারের নিকট বিক্রি করে। হালিম মুন্সী ও রাকিব পালিয়ে গেলেও পুলিশ উক্ত হালিমের ছোট চৌরাস্তার বাসায় তল্লাশী করে ঐ মোটরসাইকেল সহ আরো একটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। জানা যায় আসামীরা পটুয়াখালীতে বিভিন্ন ভাড়া বাসা নিয়ে স্বল্প সময় (২ মাস) অবস্থান করে বাসা পরিবর্তন করে।আসামীদের মূল বাড়ি কুয়াকাটায় হওয়ায় মহিপুর থানার অফিসার ইন চার্জকে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিলে তার নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ রাকিব ও রাসেল @ দুলুর মহিপুর থানার গঙ্গামতি সাকিনের বাসা তল্লাশী করে তাদের বাড়ি হতে আরো ২ টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয় এবং ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সংক্রান্তে জনৈক হুমায়ুন বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামী করে পটুয়াখালী থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করেন, মামলা নং: ১৬ তারিখ: ১২/৫/২০২১ ধারা: ৩৭৯/৪১১ দ:বি:। পটুয়াখালীর সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ পিপিএম মহোদয়ের একান্ত প্রচেষ্টা, আন্তরিকতা ও তৎপরতায় পটুয়াখালী সদর থানা ও মহিপুর থানায় সাড়াশী অভিযান পরিচালনা করে অভিনব কায়দায় মোটরসাইকেল হাতিয়ে নেয়া চোর চক্রের ৬ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং তাদের হেফাজত হতে ৪ টি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ