২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পটুয়াখালীতে গলায় চাকু ধরে শিশুকে ধর্ষণ, হাসপাতালে ভর্তি

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

পটুয়াখালীতে নয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শিশুটি গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বুধবার (৭ ডিসেম্বর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পটুয়াখালী সদর থানার ওসি তদন্ত মো. আসাদুর রহমান।  তিনি গণমাধ্যমকে জানান, গত শনিবার (৩ ডিসেম্বর) বিকাল ৩টার দিকে পটুয়াখালী সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত সাব্বির গাজী সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের খলিসাখলী গ্রামের দুলাল গাজীর ছেলে। ঘটনার পর থেকেই সে পলাতক রয়েছে।

শিশুটি জানায়, প্রতিদিনের মতো শনিবার বিকালে স্যারের কাছে প্রাইভেট পড়ার জন্য রাস্তা দিয়ে যাওয়ার পথে ছাব্বির তার মুখ চেপে ধরে এবং গলায় চাকু ধরে বলে, আমি যেদিক নিয়ে যাব সেদিকে যাবি, চিৎকার দিলে গলা কেটে ফেলব। পরে রাস্তার পাশের পরিত্যক্ত ভিটায় নিয়ে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।

ওই শিশুর বাবা বলেন, আমার মেয়েকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে থানায় নিয়ে যাই। পরে হাসপাতালে ভর্তি করেছি। অভিযুক্ত ছাব্বির গাজীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।

পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানান, বর্তমানে ওই শিশু আগের চেয়ে কিছুটা সুস্থ।  পটুয়াখালী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, ভুক্তভোগী পরিবার প্রথমে থানায় অভিযোগ দিয়েছে। এ বিষয়ে মঙ্গলবার একটি মামলা হয়েছে। আসামি গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

সর্বশেষ