৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পটুয়াখালীতে মামলার স্বাক্ষীকে কুপিয়ে বাড়ীঘর ভাংচুর-লুট

মির্জা আহসান হাবিব ঃ পটুয়াখালী জেলার সদর উপজেলার মরিচবুনিয়া ইউনিয়নের পাটুখালীতে মামলার স্বাক্ষীকে হত্যার উদ্দেশ্য কুপিয়ে জখম বাড়ীঘর ভাংচুর ও লুটতরাজ করেন এলাকার মিরাজ ও রাব্বি বাহিনী।
ভুক্তভোগী ও এলাকা সূত্রে জানা যায় পাটুখালী এলাকার আঃ মান্নান মৃধার জমিজমা বিষয় একটি মামলার স্বাক্ষী ছিলেন আবদুল আজিজ মাতুব্বর, স্বাক্ষী হওয়াকে কেন্দ্র করে স্বাক্ষীকে হত্যার উদ্দেশ্য এলাকার মিরাজ (২৩) পিতা-সানু মৃধা, রাব্বি (৩০) পিতা- আনোয়ার খান, আলমগীর হাওলাদার পিতা- সিরাজ হাওলাদার, সানু মৃধা পিতা- মৃত- আদম আলী মৃধা, সুজন (২৫) পিতা-সানু মৃধ,আলমগরি হোসেন পিতা- সিরাজ হাওলাদর,খাদিজা বেগম স্বামী- সানু মৃধা, সেলিনা বেগম স্বামী-আলমগীর হোসেন মোয়াজ্জেম মৃধা পিতা-জয়নাল মৃধা,মোতালেব মোল্লা পিতা মোজম্বর মোলাল্লা জাকির মৃধা পিতা-মোস্তফা মৃধা ও বাবুল দুয়ারী পিতা- আনু দুয়ারীসহ আরও ৭/৮ জনের সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্রদিয়ে হামলা চালিয়ে ও কুপিয়ে জখম করে মোশারফ আকন (৩২) পিতা-আবদুর রহমান আকন, সাইদুর (২৪) পিতা-আবদুল আজিজ মাতুব্বর, মাহবুব আলম, পিতা- আবদুর রহমানকে দেশীয় অস্রদিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। সন্ত্রাসীরা শুধু কুপিয় ক্ষান্ত হয়নি বাড়ি গিয়ে ঘর বাড়ী কুপিয়ে ভাংচুর করে নগত টাকা সোনা গয়না নিয়ে বীর দর্পে চলে আসে। এলাকাবাসীর সম্মিলিত চেষ্টায় সন্ত্রাসীরা পিচুহটেগেলে স্থানীয়রা গুরুতর জখম মেশারফকে পটুয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ব্যপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ