১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

পটুয়াখালীতে হোটেলে নিয়ে প্রেমিকাকে ধর্ষণ, প্রেমিক গ্রেপ্তার

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

পটুয়াখালী প্রতিনিধি :: মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেম। সম্পর্কের ১ মাস ১০ দিনের মাথায় আবাসিক হোটেলে নিয়ে ধর্ষণ করে প্রেমিকাকে। এমন অভিযোগ এনে ভিকটিমের বাবার দায়ের করা মামলায়ে প্রেমিক অমিত চন্দ্র শীলকে শনিবার (৯ জানুয়ারি) রাতে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভিকটিমকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজে (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পটুয়াখালী শহরের আবাসিক হোটেল পানামায় এ ঘটনা ঘটে।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া শিক্ষার্থীর সঙ্গে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সম্পর্ক গড়ে উঠে গলাচিপা উপজেলার আমখোলা গ্রামের হরিচন্দ্র শীলের ছেলে অমিত চন্দ্র শীলের। অমিত ঢাকার কেরানীগঞ্জ এলাকায় একটি সেলুনে বেতনভুক্ত কর্মচারী। অমিত ঢাকা থেকে গত বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী এসে হোটেল পানামায় অবস্থান নেয়। একপর্যায়ে সে ওই শিক্ষার্থীকেও সেখানে ডেকে নেয়।

পুলিশ জানায়, অমিত বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে ওই কিশোরীকে হোটেলের একটি কক্ষে ধর্ষণ করে। ওই কিশোরী হোটেল থেকে বের হয়ে বাউফলে তার বাবাকে ফোন করে ঘটনা জানায়। ওইদিন রাতেই ভিকটিমকে নিয়ে তার বাবা বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

পরে শনিবার রাতে ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে অমিতকে আসামি করে বাউফল থানায় মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ গলাচিপার আমখোলা এলাকা থেকে রাতেই অমিতকে গ্রেপ্তার করে। রোববার আসামি অমিতকে পটুয়াখালী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

ওসি আরও জানান, ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষার রিপোর্ট আসার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

সর্বশেষ