২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম

পটুয়াখালীতে ৫ শতাধিক গ্রাহকদের টাকা নিয়ে উধাও মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন!

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

পটুয়াখালী প্রতিনিধি :: পটুয়াখালীতে ৫ শতাধিক গ্রাহকের অর্ধকোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছেন মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন নামের একটি বেসরকারি সংস্থার লোকজন। ক্ষতিগ্রস্ত ব‌্যক্তিরা জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

ভূক্তভোগীরা জানান, পটুয়াখালী শহরের হেতালিয়া বাঁধঘাট এলাকায় একটি পাকা ভবন ভাড়া নিয়ে কার্যক্রম চালাচ্ছিল মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন। সংস্থাটি ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের জন‌্য ঋণ দেওয়ার লোভ দেখায়। তাদের মাঠকর্মীরা গ্রামে গ্রামে গিয়ে নতুন সদস্য (গ্রাহক) সংগ্রহ করেন। এসময় তারা প্রতিশ্রুতি দেন যে, যেসব সদস্য ৫ হাজার টাকা করে জমা দেবেন তাদেরকে ৫০ হাজার টাকা করে ঋণ দেওয়া হবে। যারা ১০ হাজার টাকা জমা দেবেন তাদেরকে ১ লাখ টাকা ঋণ দেওয়া হবে। গ্রাহকরা সরল বিশ্বাসে কেউ ৫ হাজার, কেউ ৩ হাজার এবং কেউ কেউ ২ হাজার টাকা করে জমা দেন। গ্রাহকদেরকে বৃহস্পতিবার (১৮ জুন) ঋণ দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। কিন্তু গ্রাহকরা সেদিন মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশন কার্যালয়ে গিয়ে দেখেন অফিসে তালা ঝুলছে। খোঁজ নিয়ে জানতে পারেন, ওই প্রতিষ্ঠানের লোকজন গভীর রাতে পালিয়ে গেছেন।

ভুক্তভোগী সোনালী রানী দাস জানান, তারা মানব কল্যাণ ফাউন্ডেশনের অধীনে সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নের খলিসাখালী গ্রামে একটি সমিতি করেছেন। তার সমিতির নাম গোলাপ মহিলা সমিতি। সমিতির সদস্যরা ৩ থেকে ৫ হাজার করে টাকা জমা দিয়েছেন ঋণের আশায়।

তিনি বলেন, ‘আমাদের টাকা হাতিয়ে নিয়ে তারা এভাবে উধাও হয়ে যাবে তা ভাবতেও পারিনি।’

সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আখতার মোর্শেদ জানান, ঘটনাটি শুনেছেন তিনি। তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে, কারা এসব প্রতারণা করেছে। অপরাধীরেদর চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ