১৫ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সংবাদ শিরোনাম
মুলাদীতে আড়িয়াল খাঁ নদে গোসল করতে নেমে ২ তরুণী নিখোঁজ বাকেরগঞ্জে বসতঘরে মিলল মাটিচাপা অবস্থায় বৃদ্ধার মরদেহ চরফ্যাসনে মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় সাংবাদিক পরিবারের ওপর হামলা, আহত ৪ তালতলীতে বনের ২৫০ পিস লাঠি সহ গ্রেফতার ২ দুমকিতে প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গাড়ি ভাঙচুর, থানায় অভিযোগ বৈশাখ উদযাপনে কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে পর্যটকের পদচারণায় মুখরিত বাদলপাড়া একতা গোরস্থানে চিরনিদ্রায় সায়িত সাংবাদিক মামুনের ‘মা’ মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় - দুলারহাটে সাংবাদিক পরিবারের ওপর হামলা আহত-৪ বরিশাল শেবাচিমের প্রিজন সেলে আসামিকে পিটিয়ে হত্যা সাংবাদিক মামুনের মায়ের মৃত্যুতে বরিশাল তরুণ সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের শোক

পটুয়াখালী পৌর নির্বাচনে প্রতীক পেয়েই প্রচারণায় প্রার্থীরা

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

পটুয়াখালী প্রতিনিধি ::: পটুয়াখালী পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দিয়েছে রিটার্নিং কর্মকর্তা। শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রার্থীদের উপস্থিতিতে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচনী প্রচার শুরু হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রিটার্নিং কর্মকর্তা খান আবি শাহানুর খান। তিনি জানান, প্রার্থীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রতীক পেয়েছেন। নির্বাচনের লড়াইতে টিকে থাকা ৫ জন মেয়র, ৪১ জন কাউন্সিলর এবং ১৫ জন সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতীক পেয়েছেন।

এরমধ্যে মহিউদ্দিন আহমেদ জগ প্রতীক, ডা. শফিকুল ইসলাম মোবাইল, আবুল কালাম আজাদ রেল ইঞ্জিন, মোহাম্মদ এনায়েত হোসেন নারিকেল গাছ এবং নাসির উদ্দিন খান কম্পিউটার প্রতীক পেয়েছেন।

রিটার্নিং কর্মকর্তা বলেন, সব প্রার্থীকে নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে প্রচার প্রচারণা চালাতে বলা হয়েছে। কোনো প্রার্থী আচরণবিধি অমান্য করে প্রচারণা চালালে কমিশনের আইন অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে অবশ্যই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড থাকবে।

প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই প্রার্থীরা প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। নির্বাচনে মেয়র পদে বর্তমান মেয়র মহিউদ্দিন আহমেদ ও তার ভাই আবুল কালাম আজাদ প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে রয়েছেন। তবে সাবেক মেয়র ডা. শফিকুল ইসলামের সঙ্গে বর্তমান মেয়রের ভোটের লড়াই হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভোটের সমীকরণে টিকে থাকতে বর্তমান মেয়র শুধু তার বড় ভাইকে নামাননি নিজের স্ত্রীর জন্যও মনোনয়ন সংগ্রহ করেছিলেন। তবে তার মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায়। বড় ভাই আবুল কালাম আজাদ শেষ পর্যন্ত ভোটের মাঠে থাকবেন না বলে কর্মীদের মধ্যে গুঞ্জন রয়েছে। মূলত সাবেক মেয়র ডা. শফিকুল ইসলামকে ভোটের সমীকরণে পিছনে ফেলতে এই কৌশল নিয়েছেন।

তবে ডা. শফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, পটুয়াখালী পৌরবাসী পরিবর্তন চায়। ভোট সুষ্ঠু হলে নিশ্চিত জয় হবে মোবাইল প্রতীকের।

উল্লেখ্য, আগামী ৯ মার্চ ইভিএমে পটুয়াখালী পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

সর্বশেষ