১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পদ্মা সেতুর সুফলে বন্ধ হলো গ্রিন লাইন

এবার যাত্রী সংকটের কারণে বন্ধ হয়ে গেল ঢাকা-বরিশাল রুটের জনপ্রিয় নৌ দিবা সার্ভিস এমভি গ্রিন লাইন-৩। বেশ কয়েকটি সংকটের শঙ্কায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) দুপুরে মুঠোফোনে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গ্রিন লাইন পরিবহন ও ওয়াটার ওয়েজের জিএম মো. আব্দুস ছাত্তার। তিনি জানান, ঈদের পরে ১০০ যাত্রীও হচ্ছিল না। আসলে পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পরে যাত্রী কমে গেছে। অনেকেই প্রস্তাব দিয়েছিলেন ভাড়া কমাতে।

তবে ক্যাটামেরান সার্ভিস পরিচালনায় ট্রিপ প্রতি খরচ বেশি। তাছাড়া আমরা পর্যালোচনা করে দেখেছি ভাড়া কমালেও যাত্রী তেমন বাড়বে না। এদিকে বিশ্বব্যাপী ডিজেলের দাম বেড়েছে। ফলে ট্রিপ খরচ তোলা নিয়েই শঙ্কা রয়েছে। ভাড়া কমিয়ে লঞ্চ সার্ভিস দেওয়া সম্ভব। ক্যাটাম্যারান সার্ভিস অব্যাহত রাখা অসম্ভব।

আব্দুস ছত্তার বলেন, এমভি গ্রিন লাইন-৩ কিছু যান্ত্রিক ত্রুটি রয়েছে। সেটি মেরামত করতে ডকে নিতে হবে। এতে কমপক্ষে ১৫ দিন সময় লাগবে। তবে এখনই আমরা বলতে পারছি না ঢাকা-হিজলা-বরিশাল রুটে আবারো সার্ভিসটি চালু করা হবে কিনা। এদিকে বরিশালে দায়িত্বরতদের ধারনা যাত্রী সংকটের কারণে স্থায়ীভাবেই বন্ধ করা হতে পারে এই রুটের সার্ভিস।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালের ৮ সেপ্টেম্বর ক্যাটামেরান সার্ভিসের দুটি ওয়াটারওয়েজ জাহাজ নিয়ে ঢাকা-হিজলা-বরিশাল রুটে দিবা সার্ভিস শুরু করে গ্রিন লাইন পরিবহন। সার্ভিসটি চালুর পর তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। তবে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের একমাসের মধ্যে আনুষ্ঠানিকভাবে সার্ভিস বন্ধের ঘোষণা দিল গ্রিন লাইন কর্তৃপক্ষ।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ