২০শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

পবিপ্রবি’র ভাইস-চ্যান্সেলর হলেন প্রঃ ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত

বরিশাল বাণীঃ

প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত পবিপ্রবি’র ভাইস-চ্যান্সেলর

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) নতুন ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বিশিষ্ট কৃষি বিজ্ঞানী পবিপ্রবি’র কৃষিতত্ত্ব বিভাগের জ্যেষ্ঠ অধ্যাপক ও কৃষি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোঃ নুর-ই-আলম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর জনাব মোঃ আব্দুল হামিদ তাঁকে চার বছর মেয়াদের জন্য এ নিয়োগ প্রদান করেন।
প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত ১৯৯০ সালের আগস্ট মাসে পটুয়াখালী কৃষি কলেজে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করে কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি পবিপ্রবি’র রেজিস্ট্রার (অ.দা.), পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, বিভিন্ন হলের প্রভোস্টসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। এছাড়াও তিনি পবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদ এবং নীল দলের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ছাত্রাবস্থায় বাংলাদেশ কৃষি বিশ^বিদ্যালয়ের শাহজালাল হল শাখার ছাত্রলীগের কার্যকরী কমিটিতে দপ্তর সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বাংলাদেশ সোসাইটি অফ এগ্রোনমি, সিড সায়েন্স সোসাইটি এবং বাংলাদেশ কৃষিবিদি ইনস্টিটিউশনের আজীবন সদস্য। প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্সসহ স্নাতকোত্তর এবং পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৫ সালে পিএইচডি ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। তিনি ১৯৬২ সালের ৩১ ডিসেম্বর কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার দূর্গাপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। উল্লেখ্য সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলরের মেয়াদ গত ০৪.০১ ২০২১ খ্রি. তারিখ শেষ হলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন মোতাবেক ০৬.০১.২০২১ খ্রী. থেকে প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত ভাইস-চ্যান্সেলরের রুটিন দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৭.০৫. ২০২১ খ্রী. তারিখে ভাইস-চ্যান্সেলর হিসাবে যোগদান করেন। যোগদান শেষে তিনি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন।
প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত ভাইস-চ্যান্সেলর হিসাবে নিয়োগ পাওয়ায় তিনি মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান এবং সকলের নিকট আশির্বাদ কামনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email

শেয়ার করুনঃ

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

সর্বশেষ